ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ১১ আগস্ট ২০২০, ২০ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় ছাত্রীর দাঁত ভেঙে দিলো বখাটে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৪১৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৪, ২০১৯
উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় ছাত্রীর দাঁত ভেঙে দিলো বখাটে

শরীয়তপুর: শরীয়তপুরে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় ইটের আঘাতে খাদিজা (১৯) নামে এক কলেজছাত্রীর তিনটি দাঁত ভেঙে দিয়েছে আজমির উল্লাহ উমিড (১৮) নামে এক বখাটে।

বুধবার (১৩ নভেম্বর) দুপুরে শরীয়তপুর সরকারি কলেজ ক্যাম্পাসে এ ঘটনা ঘটে।  

খাদিজা সদর উপজেলার চর কোয়ারপুর গ্রামের আবুল কালাম ঢালীর মেয়ে ও শরীয়তপুর সরকারি কলেজের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী।

বখাটে উমিড একই কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ও শরীয়তপুর পৌরসভার তুলাসার গ্রামের শাহ আলম খানের ছেলে।

এ ঘটনায় খাদিজার বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।  

পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম উদ্দিন বাংলানিউজকে জানান, বখাটে উমিড বিভিন্ন সময় খাদিজাকে উত্ত্যক্তসহ কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার দুপুরের দিকে কলেজ ক্যাম্পাসে উমিড খাদিজাকে উত্ত্যক্তসহ আজেবাজে কথা বলে। এর প্রতিবাদ করায় বখাটে উমিড খাদিজার মুখে ইট দিয়ে আঘাত করে। এতে ঘটনাস্থলেই খাদিজার তিনটি দাঁত পড়ে যায়। এছাড়া আরো কয়েকটি দাঁত ক্ষতিগ্রস্ত হয়। গুরুতর জখম অবস্থায় সহপাঠীরা খাদিজাকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।  

এ ঘটনায় খাদিজার বাবা আবুল কালাম ঢালী বাদী হয়ে উমিড ও তার কয়েকজন অজ্ঞাতনামা সহযোগীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।  

বাংলাদেশ সময়: ২৩১৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৩, ২০১৯
জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa