bangla news

বরিশালে খোলা আকাশের নিচেই পাঠদান শুরু শিক্ষার্থীদের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-১২ ৭:২৬:১০ পিএম
বুলবুলে মাদ্রাসা ভবন বিধ্বস্ত হওয়ায় খোলা আকাশের নিচে ক্লাস করছে শিক্ষার্থীরা। ছবি: বাংলানিউজ

বুলবুলে মাদ্রাসা ভবন বিধ্বস্ত হওয়ায় খোলা আকাশের নিচে ক্লাস করছে শিক্ষার্থীরা। ছবি: বাংলানিউজ

বরিশাল: ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে বরিশালের ১০ উপজেলার ৫০টি প্রাথমিক, ১০টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং দুইটি মাদ্রাসা ভবন সম্পূর্ণ ও আংশিক বিধ্বস্ত হয়েছে। 

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) বরিশাল জেলা প্রশাসকের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য পাওয়া যায়।

জানা যায়, বুলবুলের তাণ্ডবে সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত হয়েছে জেলার গৌরনদী উপজেলার উত্তর দিয়াশুর পীর দুদু মিয়া স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা ভবনটি। এতে মাদ্রাসা ভবনে পাঠদান সম্পূর্ণ অসম্ভব হয়ে পড়েছে। তবে মাদ্রাসা ভবন বিধ্বস্ত হওয়ার পরেও খোলা আকাশের নিচে পাঠদান অব্যাহত রেখেছেন শিক্ষকরা।

১৯৮৪ সালে উত্তর দিয়াশুর স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসাটি চালু হওয়ার পর থেকে ধর্মীয় শিক্ষার পাশাপাশি সাধারণ শিক্ষা দিয়ে আসছেন মাদ্রাসার ১০জন শিক্ষক। মাদ্রাসাটি এলাকার মানুষের দান অনুদানে চললেও ঘূর্নিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে মাদ্রাসার টিনশেডের ভবনের ওপর বিশাল আকৃতির দুইটি গাছ উপড়ে পড়ে কক্ষগুলো সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত হয়েছে। ফলে মঙ্গলবার সকাল থেকেই খোলা আকাশের নিচে পাঠদান শুরু করেছেন শিক্ষকরা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সদ্য এমপিওভুক্ত হওয়া একই উপজেলার ইল্লার গাইনেরপাড় এলাকার মাদ্রাসা ভবনও ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে বিপুল ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

জেলা প্রশাসকের প্রতিবেদনে জানা গেছে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি বুলবুলের তাণ্ডবে একশ ২০ কিলোমিটার কাঁচা রাস্তা, ২২ কিলোমিটার নদীর বাঁধ, তিন হাজার ৫০টি বসতঘর ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। তবে ঘূর্ণিঝড়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ফসলি জমি, গাছপালা এবং মৎস্য খামার। ঝড়ে এক লাখ ছয় হাজার হেক্টর ফসলি জমি, ছোট বড় বিভিন্ন প্রজাতির এক লাখ গাছ ক্ষতিগ্রস্থ এবং চারশ ৩৫টি মৎস্য খামার, ঘের এবং পুকুরের মাছ বের হয়ে গেছে।

জেলা প্রশাসক এস এম অজিয়র রহমান জানান, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল আঘাত হানার পরবর্তী ২৪ ঘন্টার মধ্যে প্রাথমিকভাবে ক্ষয়ক্ষতির চিত্র তুলে ধরা হয়েছে। এ নিয়ে মাঠপর্যায়ে কর্মকর্তারা এখনও কাজ করছেন।   

তিনি আরও বলেন, আমরা ক্ষতিগ্রস্থ সকলকেই সহায়তা দেওয়ার চেষ্টা করছি। যাদের ঘর-বাড়ি ভেঙে গেছে তাদেরকে ঘর তৈরির জন্য ঢেউটিন, ত্রাণসামগ্রী ও কম্বল বিতরণ করা হবে।

এদিকে বরিশালে ঘুর্ণিঝড় বুলবুল এর আঘাতে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে ঢেউটিন  ও চেক বিতরণ করেছে জেলা প্রশাসন।

মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটায় বরিশাল সদর উপজেলার তালতলী এলাকায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। সদর উপজেলার রায়পাশা কড়াপুর ও চরবাড়িয়া ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্থদের মধ্যে দুই বান্ডেল করে ঢেউটিন ও প্রতি পরিবারকে ছয় হাজার টাকা এবং খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়। দু’টি ইউনিয়নের মোট ছ’টি পরিবারকে ঢেউটিন ও টাকা এবং শতাধিক পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়। 

এসময় জেলা প্রশাসক জানান, বরিশালে ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকা করা হয়েছে। যারা যে ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন,তাদের সেভাবে ত্রাণ দেয়া হবে। এজন্য পর্যাপ্ত ত্রাণ ও অর্থ বরাদ্ধ থাকার কথা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ১২, ২০১১
এমএস/এবি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ঘূর্ণিঝড় বুলবুল
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-12 19:26:10