bangla news

‘উত্তর রাজশাহী সেচ প্রকল্প’ বাস্তবায়নের দাবিতে বিক্ষোভ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-১২ ৫:১৬:৩৮ পিএম
‘রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদ’ এর মিছিল। ছবি: বাংলানিউজ

‘রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদ’ এর মিছিল। ছবি: বাংলানিউজ

রাজশাহী: ‘উত্তর রাজশাহী সেচ প্রকল্প’ দ্রুত বাস্তবায়নের দাবিতে রাজশাহীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে নগরীর সামাজিক সংগঠন ‘রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদ’। 

পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে সোমবার (১২ নভেম্বর) সকালে শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান চত্বর থেকে একটি মিছিল বের করেন সংগঠনটির কর্মীরা। নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয় মিছিলটি। পরে পাউবো কার্যালয় ঘেরাও করে দুপুর পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচি ও সমাবেশ করেন তারা।

কর্মসূচি থেকে ঘোষণা দেওয়া হয়, সেচ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন না হলে আমলাদের জন্য রাজশাহীর প্রবেশপথ বন্ধ করে দেওয়া হবে। সড়ক, রেল ও আকাশপথ কোনোটাই ব্যবহার করতে পারবেন না তারা। 

এসময়, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত রাজশাহীর বাঘা-চারঘাট থেকে পশ্চিমে রাজশাহী শহর রক্ষা বাঁধ এবং মহানগরীর টি-গ্রোয়েন ও পুলিশ লাইন্স হয়ে গোদাগাড়ী পর্যন্ত ১৭ কিলোমিটার নদীর তীর সংরক্ষণের কাজ স্থায়ীভাবে করার দাবি জানান বিক্ষোভকারীরা। 

পরিষদের সভাপতি লিয়াকত আলীর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন-রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জামাত খান, সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. আবদুল মান্নান, সাংগঠনিক সম্পাদক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু, জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা অধ্যাপক লুৎফর রহমান, অ্যাডভোকেট এন্তাজুল হক বাবু, সাংষ্কৃতিক কর্মী মিনহাজ উদ্দিন মিন্টু। 

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন-চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবু তাহের খোকন, মুক্তিযোদ্ধা মঞ্চের সভাপতি আবদুল মতিন, জেলা লোকমোর্চার সদস্য আলিমা খাতুন লিমা, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা) জেলা শাখার সহ-সভাপতি ডা. সেলিনা বেগম, প্রকৌশলী খাজা তারেক ও ওয়েবের সভাপতি আনজুমান আরা পারভিন লিপি।

বাংলাদেশ সময়: ১৭১৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ১২, ২০১৯
এসএস/কেএসডি/ওএইচ/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   রাজশাহী
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-12 17:16:38