bangla news

উপকূলের ১৩ জেলার স্থানীয় সরকার বিভাগের ছুটি বাতিল

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-০৯ ৩:০৯:২৫ পিএম
স্থানীয় সরকার বিভাগ

স্থানীয় সরকার বিভাগ

ঢাকা: ঘূর্ণিঝড় 'বুলবুল' এর সম্ভাব্য প্রভাব মোকাবিলার জন্য আগাম প্রস্তুতি হিসেবে ১৩টি উপকূলীয় জেলার স্থানীয় সরকার বিভাগের আওতাধীন সব প্রতিষ্ঠানে কর্মরত সব কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সব ধরনের ছুটি বাতিল করে কর্মস্থল ত্যাগ না করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

শনিবার (০৯ নভেম্বর) দুপুরে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাহমুদুল হাসান  স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ নির্দেশনার কথা জানানো হয়।

স্থানীয় সরকার বিভাগের আদেশে বলা হয়, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় 'বুলবুল' এর সম্ভাব্য প্রভাব মোকাবিলার জন্য আগাম প্রস্তুতি হিসেবে ১৩টি উপকূলীয় জেলার স্থানীয় সরকার বিভাগের আওতাধীন স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর ও জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর এবং স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানে (জেলা পরিষদ, পৌরসভা, উপজেলা পরিষদ ও ইউনিয়ন পরিষদ) কর্মরত সব কর্মকর্তা/কর্মচারীর ০৯/১১/২০১৯  এবং ১০/১১/২০১৯ খ্রিস্টাব্দের ছুটি (সাপ্তাহিক ও সরকারি) বাতিলসহ কর্মস্থল ত্যাগ না করার নির্দেশনা দিয়ে আদেশ জারি করেছে স্থানীয় সরকার বিভাগ।

জেলা গুলো হলো- সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, পটুয়াখালী, ভোলা,বরগুনা,পিরোজপুর, নোয়াখালী, ফেনী, লক্ষ্মীপুর, খুলনা, চাঁদপুর, কক্সবাজার ও চট্টগ্রাম।

এক পৃথক আদেশে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরে একটি নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খোলাসহ মাঠ পর্যায়ের সব কর্মকর্তা/কর্মচারীগণকে স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে নিবিড় যোগাযোগ রক্ষাকরতঃ যথাযথ কার্যক্রম গ্রহণের নির্দেশনা দেওয়া এবং প্রয়োজনে ঘূর্ণিঝড় পরবর্তী রাস্তা-ঘাট/কালভার্ট সংস্কার/মেরামতপূর্বক সচল রাখার কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরকে উপদ্রুত এলাকা ও আশ্রয়কেন্দ্রে পর্যাপ্ত বিশুদ্ধ পানীয় জলের সরবরাহ নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

তাছাড়া দুর্গত এলাকায় সব স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানকে জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসনসহ জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সঙ্গে সমন্বয়পূর্বক কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে চট্টগ্রাম বন্দরে ৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেত ও কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫০৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৯, ২০১৯
এমইউএম/এসএইচ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-09 15:09:25