bangla news

এমপি রতনের শিক্ষিকা স্ত্রী স্কুল থেকে বরখাস্ত

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-০৯ ৫:৫৬:২১ এএম
তানভী ঝুমুর

তানভী ঝুমুর

সুনামগঞ্জ: এক দিনের ছুটি নিয়ে দীর্ঘ ১০ মাস স্কুলে না এসেও বেতন-ভাতা তুলে নেওয়ার অভিযোগে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার তেঘরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ডেপুটেশনে আসা সহকারী শিক্ষক তানভী ঝুমুরকে বরখাস্ত করা হয়েছে। 

তানভী ঝুমুর সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের দ্বিতীয় স্ত্রী। গত বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর)  সুনামগঞ্জ জেলা শিক্ষা কার্যালয় থেকে তাকে বরখাস্ত করা হয়।

তাহিরপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আকিকুর রেজা খান বাংলানিউজকে বলেন, শিক্ষিকা তানভী ঝুমুরকে ৮ জানুয়ারি থেকে সাময়িক বহিষ্কার দেখানো হয়েছে।

ঝুমুর তাহিরপুর উপজেলা থেকে ডেপুটেশনে এসে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার তেঘরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষিকতা করছিলেন। এক দিনের ছুটি নিয়ে স্কুল ছেড়ে তিনি দীর্ঘ ১০ মাস ধরে অনুপস্থিত তিনি। তবে স্কুলে না এলেও বেতন ঠিকই তুলে নিচ্ছিলেন তানভী। বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচার হলে সুনামগঞ্জ জেলা শিক্ষা অফিস তানভী ঝুমুরকে ৮ জানুয়ারি থেকে সাময়িক বরখাস্ত দেখায়।

জানা যায়, তানভী ঝুমুর শিক্ষিকা হিসেবে নিয়োগ পান তাহিরপুর উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের তরং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরে তদবির করে তিনি ডেপুটেশনে সদর উপজেলার তেঘরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আসেন। 

চলতি বছরের ৭ জানুয়ারি অসুস্থতাজনিত কারণ দেখিয়ে একদিনের ছুটি নেন তিনি। কিন্তু এরপর থেকে আর স্কুলে আসেননি। তানভী ঝুমুর তাহিপুর উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের মৃত আবুল কাশেমের মেয়ে।

একই দিনে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার ষোলগড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ডেপুটেশনে আসা শাহিমা খাতুন নামে অপর এক শিক্ষিকার ডেপুটেশন প্রত্যাহার করা হয়েছে। তার ডেপুটেশন প্রত্যাহার করে তাহিরপুর উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের গোলকপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যোগ দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়। পাঁচ বছর আগে তিনি ডেপুটেশনে এসেছিলেন। তবে শাহিমা খাতুন এখনও গোলকপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যোগ দেননি বলে জানা যায়।

বাংলাদেশ সময়: ০৫৫২ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৯, ২০১৯
এমআইএইচ/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-09 05:56:21