ঢাকা, সোমবার, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৩ আগস্ট ২০২০, ১২ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

জাফলংয়ে পাহাড়ি ঢলে ক্ষতিগ্রস্ত ২শ ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-২৬ ০৩:৩৮:১৭ পিএম
জাফলংয়ে পাহাড়ি ঢলে ক্ষতিগ্রস্ত ২শ ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান ঢলের পানিতে তলিয়ে গেছে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান। ছবি: বাংলানিউজ

সিলেট: ভারতের মেঘালয় পাদদেশ থেকে নেমে আসা আকস্মিক পাহাড়ি ঢলে জাফলং জিরোপয়েন্ট এলাকার প্রায় ২শ ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

শনিবার (২৬ অক্টোবর) ভোরে আকস্মিক পাহাড়ি ঢলে অনেক ওই ব্যবসা-প্রতিষ্ঠানগুলোতে থাকা পণ্যসামগ্রী ভেসে যায়। কিছু ভেসে যাওয়া পণ্যসামগ্রী ভেজা অবস্থায় উদ্ধার করেছেন ভুক্তভোগী ব্যবসায়ীরা।

এতে তারা ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, জাফলং জিরোপয়েন্টে পর্যটন কেন্দ্রে পিয়াইন নদীর তীরে অন্তত ২ শতাধিক অস্থায়ী দোকানপাট গড়ে উঠে। এসব দোকানে মনিপুরী কাপড় থেকে শুরু করে দেশি-বিদেশি প্রসাধনী সামগ্রী বিক্রি হত। পাশাপাশি পর্যটকদের খাওয়ার জন্য খোলা হয় কয়েকটি রেস্টুরেন্ট।  ঢলের পানিতে তলিয়ে গেছে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান।  ছবি: বাংলানিউজপিকনিক সেন্টারের ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী মাসুদ আহমদ, আলতাফ হোসেন ও আজির উদ্দিন বাংলানিউজকে বলেন, শুক্রবার দিনভর গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি হয়। তাতেও ব্যবসা চালিয়েছেন তারা। এরপর রাতেও বৃষ্টিপাত হয়। কিন্তু উজানে ভারতের মেঘালয়ে ভারী বর্ষণের ফলে ভোরে গোলা (পাহাড়ি ঢল) নামে। ভেসে যাওয়া ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের সামগ্রী। এতে পিয়াইনের পানি বৃদ্ধি পেয়ে পাহাড়ি ঢলে দোকানগুলোর মালামাল ভেসে যায়। কেউ কেউ ভেজা অবস্থায় কিছু মালামাল উদ্ধার করতে পেরেছেন।

জিরোপয়েন্টের রেস্টুরেন্ট ব্যবসায়ী বাবুল মিয়া, তোতা মিয়া ও কালা মিয়া বলেন, পাহাড়ি ঢলে স্রোতের তুড়ে রেস্টুরেন্টেগুলোর মালামাল ভাসিয়ে নিয়ে গেছে। পানিতে ভাসছে দোকানের সামগ্রী। জাফলং বল্লাঘাটের ক্ষুধা রেস্টুরেন্টের স্বত্বাধিকারী শফিকুল ইসলাম বিক্রমপুরী বাংলানিউজকে বলেন, শুক্রবার দিনগত রাতে ও শনিবার সকালে প্রবল বর্ষণের কারণে জাফলং মামারবাজার সড়কে পানি জমে গিয়ে উন্নয়নকাজ ব্যাহত হচ্ছে। মানুষের চলাচলে বিঘ্ন হওয়াতে ব্যবসায় লাল বাতি জ্বলছে।

বাংলাদেশ সময়: ১১২৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০১৯
এনইউ/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa