bangla news

মানহানি মামলা খারিজ, বেকসুর কালের কণ্ঠের সম্পাদকসহ ৪ জন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-২১ ৬:৫৫:১৯ পিএম
মানহানি মামলায় খালাস পেলেন কালের কণ্ঠের সম্পাদকসহ ৪ জন। ছবি: বাংলানিউজ

মানহানি মামলায় খালাস পেলেন কালের কণ্ঠের সম্পাদকসহ ৪ জন। ছবি: বাংলানিউজ

মাদারীপুর: মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দের দায়ের করা ৫ কোটি টাকার মানহানি মামলায় বেকসুর খালাস পেলেন দৈনিক কালের কণ্ঠের সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, স্টাফ রিপোর্টার তৈমুর ফারুক তুষার, হায়দার আলী ও মাদারীপুর জেলা প্রতিনিধি আয়শা সিদ্দিকা আকাশী।

সোমবার (২১ অক্টোবর) দুপুরে মামলার রায় দেন মাদারীপুরের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোহাম্মদ হোসেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, দৈনিক কালের কণ্ঠ পত্রিকায় ২০১৬ সালের ২ ফেব্রুয়ারি ‘জেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা আখের গোছানোয় মগ্ন’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। সেখানে মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন মোল্লা ও সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়।
 
এরই জেরে মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দে বাদী হয়ে কালের কণ্ঠের সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, স্টাফ রিপোর্টার তৈমুর ফারুক তুষার, হায়দার আলী ও মাদারীপুর প্রতিনিধি আয়শা সিদ্দিকা আকাশীকে আসামি করে ৫ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ দাবি করে মানহানি মামলা দায়ের করেন।

দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়া শেষে সোমবার (২১ অক্টোবর) দুপুরে মাদারীপুরের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোহাম্মদ হোসেন দৈনিক কালের কণ্ঠের সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, স্টাফ রিপোর্টার তৈমুর ফারুক তুষার, হায়দার আলী এবং মাদারীপুর জেলা প্রতিনিধি আয়শা সিদ্দিকা আকাশীকে বেকসুর খালাস দেন।

এ ব্যাপারে মামলার আসামিপক্ষের আইনজীবী রেজাউল করিম বলেন, এ মামলায় আনা অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হওয়ায় আদালত দৈনিক কালের কণ্ঠের সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলনসহ চার আসামিকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫১, অক্টোবর ২১, ২০১৯
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   মাদারীপুর
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-21 18:55:19