bangla news

স্পিকারের সঙ্গে পাঁচ মার্কিন সিনেটরের সাক্ষাৎ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-২০ ৮:১১:২৩ পিএম
স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ও স্টেট সিনেটর লুইস সেপুলভেদা, ছবি: সংগৃহীত

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ও স্টেট সিনেটর লুইস সেপুলভেদা, ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের পাঁচ সিনেটর। 

রোববার (২০ অক্টোবর) সংসদ ভবনে স্পিকারের কার্যালয়ে এ সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়। নিউইয়র্কের বাংলাদেশি কমিউনিটির বন্ধু হিসেবে পরিচিত স্টেট সিনেটর লুইস সেপুলভেদার নেতৃত্বে পাঁচ সিনেটর সাক্ষাতে অংশ নেন।

সাক্ষাৎকালে তারা শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিনিময়, বাংলাদেশের উন্নয়ন, বাণিজ্য প্রসার, নারী ক্ষমতায়ন, তৈরি পোশাকসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

স্পিকার বলেন, বাংলাদেশের রয়েছে হাজার বছরের সমৃদ্ধ সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য। বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা যুক্তরাষ্ট্রে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখছেন। যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার জন্য বিভিন্ন স্কলারশিপ ও সুযোগ-সুবিধা বাড়ানোর অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, নিউইয়র্কে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশিরা সেদেশের শিক্ষা ও সংস্কৃতিতে অবদান রাখার পাশাপাশি অর্থনৈতিক উন্নয়নে ভূমিকা রেখেছেন। এ সময় তিনি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাংলাদেশের শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক বিনিময়ের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

স্পিকার আরও বলেন, বাংলাদেশ নারীর ক্ষমতায়নে বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। বর্তমান সরকার নারীদের ক্ষমতায়নে যুগোপযোগী নীতিমালা প্রণয়ন এবং বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। নারীদের ক্ষমতায়নের জন্য সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় বিভিন্ন ধরনের ভাতা দেওয়া হচ্ছে।

বাংলাদেশিরা নিউইয়র্ক সিটিতে বড় অবদান রেখে চলেছেন উল্লেখ করে লুইস সেপুলভেদার বলেন, দীর্ঘদিন যাবত প্রতিনিধিদল নিউইয়র্কে বসবাসরত বাংলাদেশিদের হয়ে কাজ করে যাচ্ছে। এ কার্যক্রম আরও কার্যকর ও গঠনমূলক পদ্ধতিতে অব্যাহত রাখতে বাংলাদেশ সম্পর্কে জানতে এ সফর করছে। বাংলাদেশের সঙ্গে শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিনিময় ও বাংলাদেশি কমিউনিটির জন্য তৈরি পোশাক ও খাদ্যপণ্য আমদানির আগ্রহ প্রকাশ করেন।

এ সময় প্রতিনিধিদলের অন্যান্য সদস্য সিনেটর জন ল্যু, জেমস স্কুফিস, লিরয় কমরি ও কেভিন এ পার্কার এবং বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময় ১৯০০ ঘন্টা, অক্টোবর ২০, ২০১৯
এসকে/ওএইচ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-20 20:11:23