bangla news

ভোলায় ১০ দিনে ১৮২ জেলের কারাদণ্ড

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-২০ ১০:১০:৩৫ এএম
ভোলায় দণ্ডপ্রাপ্ত জেলেরা। ছবি: বাংলানিউজ

ভোলায় দণ্ডপ্রাপ্ত জেলেরা। ছবি: বাংলানিউজ

ভোলা: ভোলায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ ধরায় ১০ দিনে ১৮০ জেলেকে এক বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। পাশাপাশি জরিমানা আদায় করা হয়েছে ২ লাখ ৮৫ হাজার টাকা। এছাড়া ছয় লাখ ৫০ হাজার মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল ও তিন হাজার ২০০ কেজি ইলিশ জব্দ করা হয়েছে।

গত ৯ থেকে ১৯ অক্টোবর পর্যন্ত ভোলার মেঘনা ও তেঁতুলিয়া নদীতে ১৮২টি অভিযান পরিচালনা করা হয়।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা এসএম আজহারুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, মৎস্য বিভাগের তত্ত্বাবধানে পুলিশ, কোস্টগার্ড ও নৌ পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে গত ১০ দিনে মেঘনা ও তেতুলিয়া নদীতে ১৮২ অভিযান পরিচালিত হয়েছে। এরমধ্যে ১০৯টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ১৮০ জন জেলেকে এক বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে এবং মামলা দায়ের হয়েছে ১২৩টি। শনিবার (১৯ অক্টোবর) চরফ্যাশনে আরও ১৭ জেলে আটক হয়েছে।

তিনি জানান, দণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে ভোলা সদর উপজেলায় ৭৯ জন, দৌলতখানে ৪ জন, বোরহানউদ্দিনে ১৯ জন, তজুমদ্দিনে ১০ জন, লালমোহন উপজেলায় ৫ জন, চরফ্যাশনে ৫২ জন ও মনপুরার ১২ জন। জেলায় মোট নিবন্ধিত জেলে রয়েছে এক লাখ ৩২ হাজার। তবে বেসরকারি হিসেবে এর সংখ্য দুই লাখ।

তিনি আরও জানান, মা ইলিশ রক্ষায় মৎস্য বিভাগের তত্ত্বাবধানে প্রতিদিন মেঘনা ও তেতুলিয়া নদীতে অভিযান চলছে। যারা আইন অমান্য করছে ইলিশ শিকার করে তাদের জেল-জরিমানা করা হচ্ছে।

গত ৯ থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিন প্রধান প্রজনন মৌসুমে ইলিশ ধরা, বিক্রি, মজুদ ও পরিবহন নিষিদ্ধ।

বাংলাদেশ সময়: ১০০৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ২০, ২০১৯
আরআইএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ভোলা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-20 10:10:35