ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৭ আগস্ট ২০২০, ১৬ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

সরকারকে পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকাদের আল্টিমেটাম

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৮, ২০১৯
সরকারকে পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকাদের আল্টিমেটাম সরকারকে পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকাদের আল্টিমেটাম। ছবি: শাকিল

ঢাকা: সহকারী পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তাদের পদোন্নতি, গেজেটভুক্তকরণ ও ভাতার বদলে বেতন স্কেল দেওয়াসহ বিভিন্ন দাবিতে সরকারকে এক মাসের আল্টিমেটাম দিয়েছে বাংলাদেশ পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা সমিতি। এসময়ের মধ্যে দাবি মানা না হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারিও দিয়েছে সংগঠনটি।

শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি তুলে ধরে সংগঠনটির সভাপতি তহুরা খানম এ আল্টিমেটাম দেন।  

তাদের দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- বিদ্যমান নিয়োগবিধির আলোকে সহকারী পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তাদের পদোন্নতি দেওয়া, সে সঙ্গে ২০১৬ সালে পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা পদকে আবার গেজেটভুক্ত করা, ২০১৫ সালের আগে পাওনা সিলেকশনগ্রেড শতভাগ দেওয়া, পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকাদের ১৮ মাসের প্রশিক্ষণের সময় ৩৬ মাস করা ও প্রশিক্ষণকালে প্রশিক্ষণ ভাতার বদলে বেতন স্কেল দেওয়া, পদ সংরক্ষণ, স্থায়ীকরণ, নিয়োগবিধি সংশোধন করে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে পরিবার কল্যাণ পরির্দশিকাদের নিয়োগ দেওয়া।

একই সঙ্গে ৫৭৩ জন পরিদর্শিকার অবৈধ নিয়োগ বন্ধ করা, অবসর গ্রহণের পর ২০ শতাংশ টাকা কেটে না নেওয়া এবং পরিবার কল্যাণ সহকারী থেকে যারা পরিদর্শিকা হিসেবে পদোন্নতি পেয়েছেন তাদের বেতন স্কেল সমতা করা।  

এছাড়া, প্রতিটি পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে চারটি করে পরিদর্শিকা পদ সৃষ্টি করা, রিপোর্টের অধীনে মেকাপ কোর্স ছাড়া কোনো বহিরাগত প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত মিডওয়াইফারি ডিপ্লোমাধারীদের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ না দেওয়া, সব পরিবার কল্যাণ চিকিৎসকদের ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে পোস্টিং দেওয়াসহ পরিদর্শিকা থেকে কাউন্সিলর পদ সৃষ্টি করে পদোন্নতি দেওয়া।  

পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা সমিতির সভাপতি তহুরা খানম বলেন, আগামী ৩০ দিনের মধ্যে আমাদের ন্যায্য পাওনা অধিকারসহ দাবি মেনে নেওয়া না হলে কঠোর আন্দোলন যাবে পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকারা।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা সমিতির মহাসচিব আফরোজা বুলবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক তাসলিমা আক্তার, কোষাধ্যক্ষ সাজেদা বেগম প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৮, ২০১৯ 
ডিএন/এফএম /এসএইচ 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa