ঢাকা, সোমবার, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৩ আগস্ট ২০২০, ১২ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

নানিকে হত্যা করে নাতির আত্মসমর্পণ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১৮ ০৭:৫২:৩১ পিএম
নানিকে হত্যা করে নাতির আত্মসমর্পণ

নরসিংদী: রাতে দেরি করে বাড়ি ফেরায় বকা দেওয়ায় নানি ফুলমালা বেগমকে (৬০) হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছে নাতি পলাশ (২০)। এ ঘটনার পর রাতেই পলাশকে আটক করেছে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১১টায় নরসিংদী সদর উপজেলার মাধবদী থানার মেহেরপাড়া ইউনিয়নের কুড়েরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) সকালে মাধবদী থানায় ফুলমালা বেগমের ছেলে শামীম আহমেদ বাদী হয়ে পলাশকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

নিহত ফুলমালা বেগম মেহেরপাড়া ইউরিয়নের কুড়েরপাড়া গ্রামের মৃত সুন্দর আলীর স্ত্রী।

পুলিশ জানায়, মৃত সুন্দর আলীর মেয়ের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী স্বর্রপনিগৈর গ্রামের ইসলামের বিয়ে হয়। বিয়ের পর মেয়ে জামাইয়ের মৃত্যুতে মেয়ে ও নাতি পলাশকে লালন-পালন করার জন্য নিজের কাছে নিয়ে আসেন ফুলমালা বেগম। পরে নাতি পলাশকে স্কুলে ভর্তি করে লালন পালন করতেন ফুলমালা বেগম। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টায় নাতি পলাশ বাড়িতে এসে বৃদ্ধা ফুলমালার (৬০) কাছে খাবার চায়। রাতে দেরি করে বাড়িতে আসায় নানি ফুলমালা পলাশকে বকা দেয়। এনিয়ে নানির সঙ্গে পলাশের ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে পলাশ হাতের কাছে থাকা হাতুড়ি দিয়ে নানির মাথায় আঘাত করেন। এতে ঘটনাস্থলেই নানি ফুলমালা বেগম মারা যান। খবর পেয়ে পুলিশ পলাশকে আটক করে  থানায় নিয়ে যায়।

মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)  আবু তাহের দেওয়ান বাংলানিউজকে বলেন, ফুলমালা বেগমের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৮, ২০১৯
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa