bangla news

বাংলাদেশ আজ বিনিয়োগের উর্বর ভূমি

তপন চক্রবর্তী, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১৮ ৩:৪০:৩০ পিএম
ইন্ট্রাকোর সঙ্গে গারোদা ফ্লাইট মেনটেইন্যান্স এর সমঝোতা স্বাক্ষর।

ইন্ট্রাকোর সঙ্গে গারোদা ফ্লাইট মেনটেইন্যান্স এর সমঝোতা স্বাক্ষর।

জাকার্তা থেকে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশের দৃঢ় পদক্ষেপে এগিয়ে যাওয়ার গল্প শুনলো ইন্দোনেশিয়ার জনগণ।

বাংলাদেশের কোনো রাজনৈতিক দল নয় কিংবা সরকারের কর্তাব্যক্তির কাছে নয়, ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারাই শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) বাংলাদেশের প্রশংসায় মেতে ওঠেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কারণে বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশ আজ বিনিয়োগের এক উর্বর ভূমি-এমনটিই বললেন তারা।

ইন্ট্রাকোর সঙ্গে গারোদা ফ্লাইট মেনটেইন্যান্স এর সমঝোতা স্বাক্ষর।বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠান ইন্ট্রাকোর সঙ্গে ইন্দোনেশিয়ার প্রতিষ্ঠান গারোদা ফ্লাইট মেনটেইন্যান্স এর সমঝোতা স্বাক্ষর উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে সংশ্লিষ্টরা এসব কথা বলেন।

ইন্দোনেশিয়া ট্রেড এক্সপোর তৃতীয় দিনে সাইড লাইনে এ সেমিনার ও চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

শুরুটা করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রদূত রিনা সুমারনো। তাকে অনুসরণ করেন ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া চ্যাপ্টারের পরিচালক ফেরদি পিয়াই। বক্তব্য দেন ইন্দোনেশিয়ার বাস প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান লাকসানার ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওয়েরি ইউলিয়ান্তো এবং মুদ্রা (নোট) তৈরির প্রতিষ্ঠান পেত রি এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক জুনায়েদি। তবে ফেরদি পিয়াই এবং ওয়েরি ইউলিয়ান্তোর প্রশংসা সবাইকে ছাড়িয়ে যায়।

রাষ্ট্রদূত রিনা সুমারনো ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা ফেরদি  পিয়াই বলেন, এ মুহূর্তে বাংলাদেশের জিডিপির হার ৮ শতাংশের মতো। ২০১৮ সালে যা ছিল ৭.৬। তৈরি পোশাক খাতে বাংলাদেশ এখন ভিত্তি রাষ্ট্র।

ইন্দোনেশিয়ার বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশ্যে তারা বলেন, টোল তৈরি, বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা এবং পাওয়ার প্লান্ট সহ বড় বড় খাতে এখানে বিনিয়োগের সুযোগ আছে। আইটি খাতে বিনিয়োগ করলে বাংলাদেশ সরকার অনেক সুবিধা দিচ্ছে। ফেরদি পিয়াই বলেন, বাংলাদেশে বিনিয়োগের সুযোগ নিচ্ছে চীন, জাপান, কোরিয়া।

ইন্ট্রাকোর সঙ্গে গারোদা ফ্লাইট মেনটেইন্যান্স এর সমঝোতা স্বাক্ষর।লাকসানার ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওয়েরি ইউলিয়ান্তো বলেন, বাংলাদেশের সোহাগ পরিবহনে তিনি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত বাস সরবরাহ করেছেন। তিনি খুবই সন্তুষ্ট। অন্যরাও যেন বিনিয়োগের সুযোগ নেয়। এককভাবে চীন, জাপান কিংবা কোরিয়া কেন বিনিয়োগের সুযোগ নেবে? প্রশ্ন ওয়েরির।

বাংলাদেশী প্রতিষ্ঠান ইন্ট্রাকোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ রিয়াদ আলী অনুষ্ঠানে বলেন, বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে দ্রুত। এ সুযোগ না নিলে অন্য দেশের ব্যবসায়ীরা পিছিয়ে যাবেন। তিনি বলেন, ইন্দোনেশিয়ার সরকারি প্রতিষ্ঠান গারোদা ফ্লাইট মেনটেইন্যান্স বাংলাদেশে চলাচলকারী বেসরকারি বিভিন্ন বিমান সংস্থার ত্রুটি সারানোর কাজ করবে।তারা ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এ কার্যক্রম চালাবে। আগে বাংলাদেশের বিমানগুলোর কোনো ত্রুটি দেখা গেলে তা সারাতে ইন্দোনেশিয়ায় আসতে হতো।

অনুষ্ঠানে ইন্দোনেশিয়ার অনেক ব্যবসায়ী বাংলাদেশে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে কী কী সুযোগ সুবিধা আছে-তা প্রশ্নোত্তর পর্বে জানতে চান।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৮, ২০১৯
টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-18 15:40:30