bangla news

স্পিকারের সঙ্গে সার্বিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রীর সৌজন্য সাক্ষাৎ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১৭ ২:৪৫:৩৬ এএম
জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গে সার্বিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইভিচা দাদিচ। ছবি: সংগৃহীত

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গে সার্বিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইভিচা দাদিচ। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গে সার্বিয়ার সোশ্যালিস্ট পার্টির প্রেসিডেন্ট, উপ-প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইভিচা দাদিচ সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন।

বুধবার (১৬ অক্টোবর) সার্বিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এ সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়। পরে জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সাক্ষাৎকালে শিরীন শারমিন ও ইভিচা দাদিচ দ্বিপাক্ষিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় ও ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার নিয়ে আলোচনা করেন। 

স্পিকার বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পরপরই যুগোশ্লাভিয়া (সার্বিয়া যে ফেডারেশন থেকে স্বাধীন হয়) বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়। 

বাংলাদেশের সঙ্গে সার্বিয়ার সম্পর্ক ঐতিহাসিক উল্লেখ করে স্পিকার বলেন, ১৯৭৩ সালে যুগোশ্লাভিয়ায় বঙ্গবন্ধুর সফরই দুই দেশের সম্পর্কের সূচনা-ভিত। 

এসময় তিনি তৎকালীন প্রেসিডেন্ট মার্শাল টিটোর বাংলাদেশ সফরের কথা শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, তৈরি পোশাকশিল্পে বাংলাদেশের সুনাম রয়েছে। তৈরি পোশাক রফতানিতে বাংলাদেশ বিশ্বে দ্বিতীয় অবস্থান ধরে রেখেছে। 

বিশ্বের ১৮০টির অধিক দেশে বাংলাদেশে তৈরি ওষুধ রফতানি হয় উল্লেখ করে তিনি এ খাতগুলোতে সার্বিয়াকে বিনিয়োগের আহবান জানান। এসময় তিনি বাংলাদেশ থেকে দক্ষ জনশক্তি আমদানি ও ভিসা প্রক্রিয়া সহজ করারও আহবান জানান।

সার্বিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রী দাদিচ ১৪১তম আইপিইউতে বাংলাদেশ সংসদীয় প্রতিনিধিদলের অংশগ্রহণের জন্য ধন্যবাদ জানান। 

তিনি বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে সার্বিয়া সম্পর্কোন্নয়নে আগ্রহী। যুগোশ্লাভিয়ার তৎকালীন প্রেসিডেন্ট মার্শাল টিটো ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অনুসৃত রূপরেখা হতে পারে এর মূল ভিত্তি।

দাদিচ বলেন, সার্বিয়া বাংলাদেশে ব্যবসা-বাণিজ্যে বিনিয়োগে আগ্রহী। পারস্পরিক সহযোগিতার মাধ্যমে দু’দেশের বিদ্যমান সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করি। 

এসময় তিনি বাংলাদেশ সফরের আগ্রহ প্রকাশ করেন।

সাক্ষাৎকালে বাংলাদেশ সংসদীয় প্রতিনিধিদলের সদস্য ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া এমপি, চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী এমপি, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি তোফায়েল আহমেদ এমপি, শিল্প মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আমির হোসেন আমু এমপি এবং ইতালিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আবদুস সোবহান সিকদার উপস্থিত ছিলেন।

বায়লাদেশ সময়: ০২৩৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০১৯
এসকে/এইচএ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-17 02:45:36