bangla news

শরীয়তপুরে ১৬৫ জেলের কারাদণ্ড

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১৫ ৯:৩১:০৫ পিএম
অভিযান, ছবি: বাংলানিউজ

অভিযান, ছবি: বাংলানিউজ

শরীয়তপুর: শরীয়তপুরে প্রজনন মৌসুমে ইলিশ শিকার করায় ১৬৫ জেলেকে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া জব্দ করা ৫৪৫ কেজি মা ইলিশ এতিমখানায় বিতরণ ও দুই লাখ মিটার কারেন্ট জাল পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে।

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পদ্মায় ইলিশ শিকার করায় মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট কাফি বিন কবির তাদের প্রত্যেকে এক বছর করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

এর আগে সোমবার (১৪ অক্টোবর) দিনগত ১২টা থেকে মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) দুপুর ১২টা পর্যন্ত শরীয়তপুরের নড়িয়া, জাজিরা ও ভেদরগঞ্জ উপজেলার পদ্মা নদীতে অভিযান চালায় মৎস্য অধিদফতর, পুলিশ ও ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মা ইলিশ শিকার করায় নড়িয়া এলাকায় ৬৫ জেলেকে আটক ও ১ লাখ মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়। পাশাপাশি তাদের কাছ থেকে ৩০০ কেজি মা ইলিশ জব্দ করা হয়। অন্যদিকে জাজিরা এলাকায় ৮০ জেলে আটক, ৬০ হাজার মিটার জাল ও ২০০ কেজি ইলিশ জব্দ এবং ভেদরগঞ্জ এলাকায় ২০ জেলে আটক,  ৪০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল ও ৪৫ কেজি মা ইলিশ জব্দ করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাফি বিন কবির বাংলানিউজকে বলেন, সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পদ্মা নদীতে ইলিশ শিকার করায় ১৬৫ জেলেকে আটক করে এক বছর করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এছাড়া জব্দ করা ৫৪৫ কেজি ইলিশ এতিমখানায় বিতরণ ও দুই লাখ মিটার কারেন্ট জাল পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। 

যতোদিন এ নিষেধাজ্ঞা থাকবে ততোদিন পর্যন্ত এ অভিযান অব্যহত থাকবে। নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ শিকার করলে কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না বলেও জানান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাফি বিন কবির।

বাংলাদেশ সময়: ২১২০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৫, ২০১৯
ওএইচ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-15 21:31:05