bangla news

হাওরের শিক্ষার মান নিয়ে সন্তুষ্ট নই: রাষ্ট্রপতি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১৪ ১১:৩২:০৯ পিএম
বক্তব্য রাখছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। ছবি: বাংলানিউজ

বক্তব্য রাখছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। ছবি: বাংলানিউজ

কিশোরগঞ্জ: শিক্ষার গুণগত মানের ওপর জোর দিয়ে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, হাওরের তিন উপজেলায় শতাধিক প্রাইমারি স্কুল, হাইস্কুল স্থাপন করেছি। এখন কোনো কোনো ইউনিয়নে তিনটি হাইস্কুলও আছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থাকলেও শিক্ষার মান তেমন বাড়ছে না। হাওরের শিক্ষার মান নিয়ে আমি সন্তুষ্ট নই। 

সোমবার (১৪ অক্টোবর) বিকেলে কিশোরগঞ্জের হাওরের অষ্টগ্রাম খেলার মাঠে আয়োজিত সুধী সমাবেশে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এসব কথা বলেন। 

রাষ্ট্রপতি বলেন, হাওরের ছেলে-মেয়েরা বিসিএস পরীক্ষা বা অন্যান্য চাকরির নিয়োগ পরীক্ষায় প্রতিযোগিতায় টিকতে পারে না। শিক্ষকদের পাঠদানে আরও আন্তরিক হতে হবে, যেন ছেলে-মেয়েরা ভালো মানের শিক্ষা পায়। হাওরের আগামী দিনের উন্নয়ন তাদেরকেই এগিয়ে নিতে হবে।

হাওরের উন্নয়ন ও পরিবেশের ওপর জোর দিয়ে রাষ্ট্রপতি আরও বলেন, হাওরের মানুষের জীবন ও জীবিকা নির্বাহের জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করছি। হাওরের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন হচ্ছে। আগে এক উপজেলা থেকে অন্য উপজেলায় যেতে সারাদিন লেগে যেত। এখন মিঠামইন-ইটনা-অষ্টগ্রামের মধ্যে ৩০ কিলোমিটার অলওয়েদার রাস্তার ফলে সড়ক পথে ১৫ মিনিটে, আধা ঘণ্টায় যাওয়ার সুযোগ হচ্ছে। এসব সড়কের দু’পাশে হিজল ও করস গাছ লাগাতে হবে যেন সড়কও ভাল থাকে, সৌন্দর্যও বৃদ্ধি পায়। বর্তমান সরকার দেশের সার্বিক উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। প্রত্যন্ত ও হাওর অঞ্চলসহ সব অঞ্চলের মানুষ উন্নয়নের সুফল ভোগ করছে। 

জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেন, নির্বাচনের আগে আপনি যেমন করেছিলেন তেমনি তাদের (সাধারণ মানুষ) সঙ্গে ভাল সম্পর্ক বজায় রাখুন। তাদের আনন্দ ও দুঃখের সময় তাদের পাশে থাকুন। 

উন্নয়নমূলক কাজ দেখছেন রাষ্ট্রপতি। ছবি: বাংলানিউজদেশের চলমান উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নির্বাচিত প্রতিনিধি, অভিজাত ও রাজনৈতিক নেতাসহ সবাইকে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করার আহ্বান জানান রাষ্ট্রপতি। 

এসময় হাওর অঞ্চলে মাদকের বিস্তার নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি। পাশাপাশি অভিভাবক এবং সংশ্লিষ্টদের মাদকের অপব্যবহারের বিরুদ্ধে চলমান অভিযানে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার আহ্বান জানান রাষ্ট্রপতি।

কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও রাষ্ট্রপতির বড় ছেলে রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিকের সভাপতিত্বে সুধী সমাবেশে বক্তব্য রাখেন-কিশোরগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য মো. আফজাল হোসেন, কিশোরগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নূর মোহাম্মদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুল হক হায়দারী, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলাম, অষ্ট্রগ্রাম সরকারি রোটারী কলেজের অধ্যক্ষ মোজতবা আরিফ খান প্রমুখ।
 
এ সময় উপস্থিত ছিলেন-রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়ুয়া, রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন, জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী, পুলিশ সুপার (এসপি) মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ, পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট শাহ আজিজুল হক, জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সৈয়দ শাহজাহানসহ সামরিক,  বেসামরিক উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। 

এর আগে, সোমবার (১৪ অক্টোবর) দুপুরে রাষ্ট্রপতি ইটনার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শন করেন। এরপর তিনি ইটনা থেকে অষ্টগ্রাম উপজেলায় যান। বিকেলে সুধী সমাবেশে যোগদান করেন। সন্ধ্যায় রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ অডিটোরিয়ামে গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। পরে জেলা পরিষদ ডাকবাংলোয় তিনি রাত্রীযাপন করবেন।
 
মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) বেলা ১১টায় অষ্টগ্রামের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শন করবেন রাষ্ট্রপতি। দুপুরে অষ্টগ্রাম উপজেলা থেকে রাষ্ট্রপতি ঢাকার বঙ্গভবনে ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২৩২৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৪, ২০১৯
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   কিশোরগঞ্জ রাষ্ট্রপতি
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-14 23:32:09