ঢাকা, বুধবার, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ অক্টোবর ২০১৯
bangla news

ইউএনও’র হস্তক্ষেপে নওগাঁয় বাল্যবিয়ে বন্ধ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১৩ ৫:৫৪:০০ এএম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

নওগাঁ: নওগাঁর নিয়ামতপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়া মারিয়া পেরেরার হস্তক্ষেপে রক্ষা পেল ভবানীপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০১৯ সালের জেএসসি পরীক্ষার্থী জেসমিনের বাল্যবিয়ে। সে উপজেলার ভাবিচা ইউনিয়নের ডিমা গ্রামের হুমায়ন কবিরের মেয়ে।

শনিবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে ৩৩৩ থেকে ফোনে এসএমএস পাওয়ার পর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানতে পারেন, ভবানীপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী জেসমিনের বাল্যবিয়ের আয়োজন চলছে। এমন সংবাদে ইউএনও ও থানার (ভারপ্রাপ্ত) ওসি হুমায়ন কবির ও পুলিশ ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিয়ে বন্ধ করে দেয়।

এরপর জেসমিনকে সঙ্গে নিয়ে গোপনে বিয়ে দেওয়ার জন্য তার বাবা-মা মান্দার বালুবাজার এলাকার কাজী অফিসের দিকে রওনা হয়েছে। সঙ্গে সঙ্গে মান্দা উপজেলার ইউএনও আব্দুল হাকিম এবং ওসি মোজাফ্ফর হোসেনকে বিষয়টি জানিয়ে ব্যবস্থা নিতে বলেন নিয়ামতপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়া মারিয়া পেরেরা।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়া মারিয়া পেরেরার সামনে ১৮ এর আগে মেয়ের বিয়ে দিবেননা মর্মে মুচলেকায় স্বাক্ষর করেন।

বাংলাদেশ সময়: ০৫৫৩, অক্টোবর ১৩, ২০১৯
এমএমইউ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   নওগাঁ বাল্যবিয়ে
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-13 05:54:00