bangla news

বিশ্ব কারুশিল্প শহরের স্বীকৃতি পেলো সোনারগাঁও

স্টাফ করেসপনডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১২ ৯:৩৭:২৯ পিএম
ওয়ার্ল্ড ক্রাফটস কাউন্সিলের স্বীকৃতিপত্র দেখাচ্ছেন রুবী গজনভী, ছবি: বাংলানিউজ

ওয়ার্ল্ড ক্রাফটস কাউন্সিলের স্বীকৃতিপত্র দেখাচ্ছেন রুবী গজনভী, ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: বিশ্ব কারুশিল্প শহরের মর্যাদা পেয়েছে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও। ‘জামদানি পল্লী’ হিসেবে খ্যাত এলাকাটি জামদানির কারণেই এ স্বীকৃতি অর্জন করেছে। এছাড়া বাংলাদেশের প্রথম কোনো স্থান হিসেবে সোনারগাঁও এ স্বীকৃতি অর্জন করেছে।

শনিবার (১২ অক্টোবর) জাতীয় কারুশিল্প পরিষদ ও বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত ‘ঐতিহ্যের বিনির্মাণ’ শীর্ষক পাঁচ সপ্তাহব্যাপী জামদানি উৎসবের শেষ দিন এ তথ্য জানানো হয়। এ দিন রাজধানীর বেঙ্গল শিল্পালয় প্রদর্শনশালায় এ উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

কারুশিল্প পরিষদের নির্বাহী সদস্য ও সাবেক সভাপতি রুবী গজনভী জানান, জামদানি উৎসব আয়োজনের মূল অনুষঙ্গ হিসেবে ওয়ার্ল্ড ক্রাফটস কাউন্সিলের কাছে সোনারগাঁওকে ওয়ার্ল্ড ক্রাফটস সিটি বা বিশ্ব কারুশিল্প শহরের মর্যাদা দেওয়ার জন্য আবেদন করা হয়।

এ পরিপ্রেক্ষিতে সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে সংস্থাটির বিচারক দল বাংলাদেশ ঘুরে যায়। এরপর শনিবার সংস্থার সভাপতি রোজি গ্রিনলেস স্বাক্ষরিত এমন স্বীকৃতিপত্র হাতে আসে।

তিনি বলেন, এ স্বীকৃতির ফলে জামদানি শিল্পের পীঠস্থান হিসেবে সোনারগাঁওয়ের সুনাম ও কৃতিত্ব বিশ্ব দরবারে প্রতিষ্ঠিত হবে। দ্বার উন্মোচিত হবে সৃজনশীল পর্যটনের। এর পাশাপাশি স্থানীয় উদ্ভাবনী শক্তি, মেধা ও অভিজ্ঞতার পরিধি বিস্তৃত হবে।

এছাড়া জাতীয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অভিজ্ঞতা ও কৌশল বিনিময়ের ক্ষেত্র তৈরি হবে বলেও তিনি আশা করেন।

এর আগে ভারতের মহাবলিপুরম (পাথর খোদাই) ও জয়পুর (গয়না), চীনের ফুশিন (অ্যাগেট), থাইল্যান্ডের সাখন নাখন (ইন্ডিগো ডাই), ডেনমার্কের বর্নহোম (সিরামিক) ও ইরানের কারপোরগান (মৃৎশিল্প) বিশ্ব কারুশিল্প সংস্থার স্বীকৃতি লাভ করে।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১২, ২০১৯
ডিএন/টিএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   নারায়ণগঞ্জ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-12 21:37:29