bangla news

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষানবিশ আইনজীবীদের মানববন্ধন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১১ ৩:১৫:২৯ এএম
ছবি:বাংলানিউজ

ছবি:বাংলানিউজ

ঢাকা: বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষানবিশ আইনজীবীদের বার কাউন্সিলের তালিকা ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় ও বার কাউন্সিলের কার্যকর পদক্ষেপের দাবিতে মানববন্ধন করেছে শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা এ মানববন্ধন করেন।

এতে স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটি, সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটি সহ বিভিন্ন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, বর্তমানে প্রায় ২ হাজার জন শিক্ষানবিশ আইনজীবী শিক্ষার্থী বার কাউন্সিলের রেজিস্ট্রেশন এবং ফরম পূরণ করতে পারছে না। ইউজিসি'র বেঁধে দিয়ে নির্দিষ্ট আসন সংখ্যার বাইরে অতিরিক্ত শিক্ষার্থী ভর্তি করিয়েছেন কিছু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। তার ফলেই এ ধরনের সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে।

তারা বলেন, আইন বিষয়ের প্রতি অতিরিক্ত চাহিদার কারণে এবং শিক্ষার মান ধরে রাখতে ইউজিসি আইন বিভাগের প্রতি সেমিস্টারে ৫০ জনের বেশি শিক্ষার্থী ভর্তি না করার বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কে চিঠি দেয়। পরবর্তীতে ২০১৭ সালের ১২ এপ্রিল দেশের সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন বিভাগের প্রতি সেমিস্টারে ৫০ জনের বেশি ভর্তি করতে পারবে না বলে উচ্চ আদালত রায় দেয়। তারপরও কিছু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এই সময়ের পর অতিরিক্ত শিক্ষার্থী ভর্তি করেছেন। ফলে এসব বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজার হাজার শিক্ষার্থী এখন চরম বিপাকে পড়েছে। তারা কেউই বার কাউন্সিলের রেজিস্ট্রেশন কার্ড ও ফরম পূরণ করতে পারছে না।

শিক্ষার্থীরা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের সাথে প্রতারণা করেছে। তাদের ইচ্ছেমতো ভর্তি নিয়েছেন, ব্যবসা করেছেন শিক্ষার্থীদের ক্যারিয়ার নিয়ে, তাদের জীবন ও স্বপ্ন নিয়ে। ফলশ্রুতিতে হাজার হাজার শিক্ষার্থী সম্পূর্ণ নির্দোষ থাকার পরও সবার ভবিষ্যত নিয়ে শঙ্কা।

এসময় এবিষয়ের শিক্ষার্থীরা উচ্চ আদালতের শরণাপন্ন হয়েছেন বলেও জানান। একইসাথে, যেহেতু শিক্ষার্থীরা সম্পূর্ণ নির্দোষ, সেহেতু তাদের রেজিস্ট্রেশন কার্ড ও ফরম পূরণ করতে দেয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি উচ্চ আদালত যেন মানবিক সদয় হয়, তার জন্যও আহবান জানান।

বাংলাদেশ সময়: ০৩১৪ ঘণ্টা, অক্টোবর ১১, ২০১৯
এইচএমএস/এমএমএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-11 03:15:29