bangla news

ফাহাদের ভাইকে মারধর: যা বললো পুলিশ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-০৯ ১০:০৫:৩২ পিএম
ফাহাদের ভাই আবরার ফায়াজ। ছবি: সংগৃহীত

ফাহাদের ভাই আবরার ফায়াজ। ছবি: সংগৃহীত

কুষ্টিয়া: বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র নিহত আবরার ফাহাদের বাড়িতে সমবেদনা জানাতে গিয়ে তার বাবা-ভাইয়ের তোপের মুখে পড়েছিলেন প্রতিষ্ঠানটির উপাচার্য (ভিসি) সাইফুল ইসলাম। পরে গ্রামবাসীদের বিক্ষোভের মুখে ফিরে যেতে হয় তাকে। তবে, ফাহাদের ভাই আবরার ফায়াজের দাবি, এসময় কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান তাকে আঘাত করেছেন। 

এ নিয়ে সংবাদমাধ্যমে খবর প্রকাশের পর ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়। এর প্রেক্ষিতে কুষ্টিয়া জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার পুলিশ সুপাররের সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ ঘটনার ব্যাখা দেওয়া হয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বুধবার (৯ অক্টোবর) বিকেলে বুয়েটের ভিসি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম কুষ্টিয়ায় গিয়ে স্থানীয় জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সেক্রেটারি, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানসহ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে কুমারখালী থানার রায়ডাঙ্গা গ্রামে নিহত আবরার ফাহাদের বাড়ি পৌঁছান। সেখানে ফাহাদের দাদা, বাবা, চাচা ও আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে নিয়ে কবর জিয়ারত করেন। কবর জিয়ারত শেষে আবার ঢাকায় ফিরে যান ভিসি। 

কিন্তু, কিছু মহল এ ঘটনাকে অতিরঞ্জিত করে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য বিভিন্নভাবে প্রচারণা চালাচ্ছে যে, পুলিশের সঙ্গে স্থানীয় গ্রামবাসীর সংঘর্ষ ঘটেছে। প্রকৃতপক্ষে এ ধরনের কোনো ঘটনাই ঘটেনি। এ ধরনের ভিত্তিহীন সংবাদ প্রচার করা অনাকাঙ্ক্ষিত ও অনাভিপ্রেত।

বাংলাদেশ সময়: ২২০৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৯, ২০১৯
একে

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   কুষ্টিয়া ফাহাদ হত্যা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-09 22:05:32