bangla news

ফেরি চলাচল বন্ধ: দুর্ভোগে পরিবহন শ্রমিকেরা

ইমতিয়াজ আহমেদ, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-০৮ ৮:২২:৫৬ এএম
প্রচণ্ড স্রোতের কারণে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে বন্ধ রয়েছে সব ফেরি চলাচল। ছবি: বাংলানিউজ

প্রচণ্ড স্রোতের কারণে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে বন্ধ রয়েছে সব ফেরি চলাচল। ছবি: বাংলানিউজ

মাদারীপুর: নাব্যতা সংকট ও প্রবল স্রোতের কারণে মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে বন্ধ রয়েছে সব ফেরি চলাচল। সোমবার (০৭ অক্টোবর) দিনগত রাত নয়টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখে কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) সকাল পৌনে আটটায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত চলাচল শুরু হয়নি। আদৌ মঙ্গলবার চলাচল করতে পারবে কিনা তা জানে না ঘাট কর্তৃপক্ষ।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) কাঁঠালবাড়ী ঘাট সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে।

এদিকে ফেরি বন্ধ থাকায় পারাপারের অপেক্ষায় থাকা পরিবহন চালক ও শ্রমিকদের দুর্ভোগ বেড়েছে।

কাঁঠালবাড়ী ঘাট সূত্র জানায়, সোমবার রাত থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় ঘাট এলাকায় পণ্যবাহী পরিবহন আটকে আছে। পদ্মায় নাব্যতা সংকট ও তীব্র স্রোত অব্যাহত থাকায় ফেরিগুলো চলতে পারছে না।ঘাটে আটকা পণ্যবাহী ট্রাক। ছবি: বাংলানিউজকাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া রুটে ৪টি রো-রোসহ মোট ১৮টি ফেরি থাকলেও উদ্ভূত সংকটের কারণে মাঝেমধ্যেই চলাচল ব্যাহত হওয়ার পাশাপাশি দীর্ঘসময় বন্ধও থাকছে ফেরি চলাচল। ফলে দুর্ভোগ পিছু ছাড়ছে না এই নৌরুট ব্যবহারকারীদের।

যশোর থেকে আসা ট্রাকচালক রুহুল আমিন বাংলানিউজকে বলেন, সোমবার রাত থেকে ফেরি বন্ধ। আটকে আছি ঘাটে। নির্ধারিত সময় ঢাকা যেতে পারছি না। এছাড়া ঘাটে খাদ্য দ্রব্যের দামও বেশি। সবমিলিয়ে বেশ কষ্টকর হয়ে উঠছে এই রুটের চলাচল।ঘাটে আটকা পণ্যবাহী ট্রাক। ছবি: বাংলানিউজআরেক ট্রাকচালক আব্বাস মিয়া বাংলানিউজকে বলেন, সোমবার বিকেলে এসেও পার হতে পারিনি। আর এখনো ফেরি বন্ধ। কখন চালু হবে তাও জানে না কেউ।

পচনশীল পণ্যবাহী এক ট্রাকের শ্রমিক জানান, ঘাটে আটকে থেকে গাড়িতে থাকা সবজি নষ্ট হওয়ার পথে। আর ঘাটে বসে থেকে আমাদের খরচও বেড়ে যাচ্ছে।

বিআইডব্লিউটিসির কাঁঠালবাড়ী ঘাটের ব্যবস্থাপক আব্দুস সালাম মিয়া বাংলানিউজকে বলেন, পদ্মানদীতে নাব্যতা সংকট ও তীব্র স্রোতের কারণে সোমবার রাত থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ। কখন চালু হবে তার নির্দেশনা এখনো আসেনি।

বাংলাদেশ সময়: ০৮১৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৮, ২০১৯
এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ফেরি পারাপার মাদারীপুর
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-08 08:22:56