bangla news

ব্যবসায়ীকে ডেকে নিয়ে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৯-১১ ২:১২:২০ পিএম
কুপিয়ে হত্যা। প্রতীকী ছবি

কুপিয়ে হত্যা। প্রতীকী ছবি

নরসিংদী: নরসিংদীতে ডিস ব্যবসাকে কেন্দ্র করে রুহুল আমিন (২২)  নামে এক রং ব্যবসায়ীকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা।

বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে শহরের সঙ্গিতার জবা মিল এলাকায় এ হত্যাকাণ্ড ঘটে।  নিহত রুহুল আমিন সঙ্গিতা এলাকার বিল্লাল মিয়ার ছেলে।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সঙ্গিতা এলাকায় ডিস ব্যবসা করে আসছিল স্থানীয় সারোয়ার হোসেনের ছেলে তানজিল। সম্প্রতি রুহুল তার নিজ এলাকায় ডিস ব্যবসা করতে চান। সেই অনুসারে রুহুল ৪ শতাধিক ডিস লাইন দেওয়ার কথা জানিয়েছিল তানজিলকে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব তৈরি হয়। এরই জেরে বুধবার ১১টার দিকে তানজিল হৃদয়, ছোটন ও মনির রুহুলকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। একপর্যায়ে তারা রুহুলকে জবা ট্রেক্সটাইল মিল সংলগ্ন একটি মাঠে নিয়ে কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। এসময় সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এসময় তার চিৎকারে আশপাশের লোক এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। 

পরে তাকে উদ্ধার করে নরসিংদী জেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক রুহুলকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের ভাবী সাথী বলেন, রুহুল বাড়িতেই ছিল। সন্ত্রাসীরা তাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। একটু পর তার মৃত্যুর খবর পাই। আমরা ওই সন্ত্রাসীদের বিচার চাই।

নিহতের ভাই শরিফুল বলেন, ছোটনের সঙ্গে রুহুলের অংশীদার ব্যবসা ছিল। কিন্তু ছোটন রুহুলকে কোনো লাভ দিতো না। সে একাই সব করতে চেয়েছিল। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর জেরে তানজিল হৃদয়, ছোটন ও মনির আমার ভাই রুহুলকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে হত্যা করে।

নরসিংদী সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) সালাউদ্দিন বলেন, রুহুল ডিস ব্যবসায় অংশীদার হতে চাওয়ায় তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব তৈরি হয়। এরই জেরে তাকে হত্যা করা হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪১০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   নরসিংদী
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-09-11 14:12:20