bangla news

আরডি মাহফুজের অপসারণে কক্সবাজার বেতারশিল্পীদের সমাবেশ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৯-১১ ২:০৭:১৩ পিএম
সমাবেশ কক্সবাজার বেতারশিল্পী সমন্বয় পরিষদের নেতারা। ছবি: বাংলানিউজ

সমাবেশ কক্সবাজার বেতারশিল্পী সমন্বয় পরিষদের নেতারা। ছবি: বাংলানিউজ

কক্সবাজার: কক্সবাজার বেতারের আঞ্চলিক পরিচালক (আরডি) মো. মাহফুজুল হক ও কতিপয় কর্মচারীর আর্থিক অনিয়ম, অব্যবস্থাপনা ও দুর্নীতির প্রতিবাদ এবং তাদের দ্রুত অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে বেতারশিল্পীরা।

বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকালে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের সামনে কক্সবাজার বেতারশিল্পী সমন্বয় পরিষদ এ কর্মসূচির আয়োজন করে। সমাবেশ কক্সবাজার বেতারের শিল্পী-কলাকুশলী ছাড়াও সংস্কৃতিসেবী, রাজনৈতিক ও সুশীল সমাজের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
 
সমাবেশ বক্তরা বলেন, পর্যটন শহর এবং ভৌগলিক  অবস্থানগত কারণে শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতির বিকাশে ও সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড জনগণের কাছে পৌঁছে দিতে স্থানীয় জনগোষ্ঠীর কাছে এ কক্সবাজার বেতারকেন্দ্রটির গুরুত্ব অনেক বেশি। এ ছাড়াও এখানে বিপুল সংখ্যক রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর অবস্থানের কারণে এ বেতার কেন্দ্রটির গুরুত্ব আরও বেড়ে যায়। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখজনক বিষয় হলো, বর্তমানে এ বেতারকেন্দ্রটি দুর্নীতি ও নানা অনিয়মের আখড়ায় পরিণত হয়েছে। বর্তমান কক্সবাজার বেতারের আরডি মাহফুজুল দু’জন কর্মচারীর সহযোগিতায় বহিরাঙ্গন অনুষ্ঠান এবং শিল্পীখাত এবং ইউনিসেফের প্রকল্প থেকে  প্রায় দুই কোটি টাকার আর্থিক দুর্নীতি করেছেন। যে কারণে শিল্পী সমাজকে মাঠে নামতে হয়েছে। সমাবেশে অবিলম্বে এ দুর্নীতিবাজ আরডি মাহফুজুলকে অপসারণ এবং তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে আরও কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা দেবেন বলেও জানান পরিষদের নেতারা। 

এ সময় বক্তারা আরও বলেন, শুধু আর্থিক অনিয়মসহ অনৈতিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন আরডি মাহফুজুল। যা বেতারের ভাবমূর্তিকে দারুণভাবে ভুলুন্ঠিত করেছে এবং শিল্পী সমাজে ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। 
 
সমাবেশে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বেতারের নাট্য প্রয়োজক স্বপন ভট্ট্যাচার্য্য বলেন, মোটা অংকের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে স্থানীয় শিল্পী, কলাকুশীল এবং সুশীল সমাজের আন্দোলনের মুখে ২০১৭ সালের জুলাই মাসে তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত আঞ্চলিক পরিচালক মো. হাবিবুর রহমানকে স্ট্যান্ড রিলিজ করে সিলেটে বদলি করা হয়। কিন্তু অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ার পরও কর্তৃপক্ষ তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা না নেওয়ায় কক্সবাজার বেতারকেন্দ্রে সেই দুর্নীতি ও অনিয়ম বন্ধ হয়নি। যে কারণে শিল্পীদের আবারও রাস্তায় নামতে হয়েছে। 

কক্সবাজার বেতারশিল্পী সমন্বয় পরিষদের সভাপতি ও বেতারের সংগীত প্রযোজক অধ্যাপক রায়হান উদ্দিনের সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের অর্থ সম্পাদক সুশান্ত পাল বাচ্চুর সঞ্চালনায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য দেন, সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও বেতারের নাট্য প্রযোজক জসীম উদ্দিন বকুল, কক্সবাজার সম্পদ রক্ষা আন্দোলনের সদস্য সচিব  মফিজুর রহমান, সংগঠনের সহ-সভাপতি ও বেতারের সংগীত প্রযোজক বশিরুল ইসলাম, সংগীত প্রযোজক দ্বীপলাল চক্রবর্তী, কক্সবাজার সন্মিলিত সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি সত্যপ্রিয় চৌধুরী দোলন, সংগঠনের সহ-সাধারণ সম্পাদক পরেশ কান্তি দে, বেতারের সংগীত শিল্পী মো. শাহ আলম, ইসকান্দার মির্জা, বনানী চক্রবর্তী, সংগীত বড়ুয়া, রেডিও এনাউন্সার ক্লাবের সভাপতি সুনীল বড়ুয়া, সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক তৌফিকুল ইসলাম লিপু, অনুষ্ঠান ঘোষক দীপক বড়ুয়া, নাট্য শিল্পী শাহানা মজুমদার চুমকি, সংগীত শিল্পী আবুল কাশেম উপস্থাপক দীপক বড়ুয়া প্রমুখ।

সংগঠনের সভাপতি অধ্যাপক রায়হান উদ্দিন বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী দুর্নীতির ব্যাপারে জিরো টরালেন্স। আমরা শিল্পী সমাজ চাই, দ্রুত দুর্নীতিবাজ আরডি মাহফুজুলসহ কর্মচারীদের অপসারণ করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কক্সবাজার বেতারকে দুর্নীতিমুক্ত করবে। অন্যথায় আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য, কক্সবাজার বেতারের আরডি মাহফুজুল হকের নানা অনিয়ম নিয়ে বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম-এ দফায় দফায় সংবাদ প্রকাশের পর তিন সদস্যর তদন্ত কমিটি গঠন করে তথ্য মন্ত্রণালয়। 

বাংলাদেশ সময়: ১৪০৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯
এসবি/আরআইএস/ 

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-09-11 14:07:13