ঢাকা, সোমবার, ২৮ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ অক্টোবর ২০১৯
bangla news

ভারতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী জাঁকজমকভাবে পালন হবে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-৩০ ১০:৫৭:০৮ পিএম
জাতীয় জাদুঘর মিলনায়তনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠান। ছবি: বাংলানিউজ

জাতীয় জাদুঘর মিলনায়তনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠান। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী পালনের জন্য বাংলাদেশ সরকার ব্যাপক প্রস্তুতি নিচ্ছে। আর সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ এ বাঙালির জন্মবার্ষিকী উদযাপনে ভারত সরকারও বসে নেই।

শুক্রবার (৩০ আগস্ট) রাতে রাজধানীর জাতীয় জাদুঘর মিলনায়তনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এ কথা জানান বঙ্গীয় সাহিত্য সংস্কৃতি সংসদের মূখ্য উপদেষ্টা কবি আজিজুর রহমান আজিজ।

‘গানে ও কবিতায় বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ’ শীর্ষক অনুষ্ঠানটি যৌথভাবে ইন্দিরা গান্ধী কালচারাল সেন্টার, ঢাকাস্থ ভারতের হাইকমিশন ও বঙ্গীয় সাহিত্য সংস্কৃতি সংসদ আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে সমবেতদের উদ্দেশ্যে কবি আজিজুর রহমান আজিজ বলেন, বঙ্গবন্ধু মরেননি। তিনি বেঁচে আছেন। বেঁচে থাকবেন। তিনি আমাদের মাঝেই আছেন।

এ বন্ধু-দেশের কয়েকটি প্রদেশে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে পালন হবে জাতির পিতার জন্ম শতবার্ষিকী। ভারত সরকারের সহযোগিতায় এ উদ্যেগের বাস্তবায়ন করবে বঙ্গীয় সাহিত্য সংস্কৃতি সংসদ ও ইন্দিরা গান্ধী কালচারাল সেন্টার।

বাংলানিউজকে কবি আজিজুর রহমান আজিজ বলেন, ভারত সরকারের সহযোগিতায় ভারতের অন্তত ১০টি স্থানে জাতির জনকের জন্মশত বার্ষিকী ও স্বাধীনতার পঞ্চার বছর জাঁকজমকভাবে উদযাপন করবো। ত্রিপুরা, আসাম, মেঘালয়ের বিভিন্ন স্থানে; পশ্চিমবঙ্গ, আসানশোল ও শান্তি নিকেতনে নানা কর্মসূচির আয়োজন করা হবে।

ইন্দিরা গান্ধী কালচারাল সেন্টারের পরিচালক ড. নিপা চৌধুরী বলেন, আমরা যৌথভাবে বেশকিছু উদ্যোগ নিয়েছি। এছাড়া আমাদের মাঝে সাংস্কৃতিক আদান-প্রদানও অব্যাহত থাকবে।

অনুষ্ঠানে ইন্দ্র মোহন রাজবংশী বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে তিনটি কালজয়ী গান পরিবেশন করেন। যে গানগুলো ৬৯ এর গণঅভ্যত্থান, সত্তরের নির্বাচন ও স্বাধীনতা আন্দোলনে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছিল।

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে রচিত কবিতা পাঠ ও গান করেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউটের বাংলা ভাষার প্রধান অধাপক রুপা চক্রবর্তী,  বঙ্গীয় সাহিত্য সংস্কৃতি সংসদের সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম ও শিল্পি অনিমা মুক্তি গোমেজ।

বাংলাদেশ সময়: ২২৫৬, আগস্ট ৩০, ২০১৯
ইইউডি/এমএমইউ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-30 22:57:08