ঢাকা, সোমবার, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ অক্টোবর ২০১৯
bangla news

ট্রেনের ছাদে চড়লেই দণ্ড, সব স্টেশনে নোটিশ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-৩০ ৫:৪৩:১৯ পিএম
ট্রেনের ছাদে যাত্রী/ফাইল ফটো

ট্রেনের ছাদে যাত্রী/ফাইল ফটো

ঢাকা: ঈদসহ নানা সময়ে ট্রেনের ছাদে ভ্রমণ করেন যাত্রীরা। ফলে ট্রেনের ছাদ থেকে পড়ে প্রাণ হারান অনেকে। এখন ট্রেনের ছাদে ভ্রমণ বিষয়ে বিদ্যমান আইন প্রয়োগ করতে যাচ্ছে মন্ত্রণালয়। আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে কোনো যাত্রী ঝুঁকি নিয়ে ট্রেনে ভ্রমণ করলে তার এক বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড দেওয়া হবে। এ বিষয়ে বাংলাদেশের সব রেলওয়ে স্টেশনে নোটিশ পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

এসব নোটিশ টাঙানো থাকবে সব স্টেশনে। এমনকী প্রচারণাও চালানো হবে। এরপরেও কেউ ছাদে ভ্রমণ করলে বাংলাদেশ রেলওয়ে পুলিশের সদস্যরা তাদের আটক করে আইনি পদক্ষেপ নেবেন।
 
বাংলাদেশ রেলওয়ের যুগ্ম মহাপরিচালক (অপারেশন) মোছা. রশিদা সুলতানা গণি বাংলানিউজকে বলেন, ট্রেনের ছাদে চড়লে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এক বছরের কারাদণ্ডও হতে পারে। এ বিষয়ে নোটিশ সব রেলওয়ে স্টেশনে ইতোমধ্যেই আমরা পৌঁছে দিয়েছি।
 
সাজা সম্পর্কে বিজ্ঞপ্তিতে রেলপথ মন্ত্রণালয় জানায়, ১৮৯০ সালের রেলওয়ে আইনের ১২৯ নম্বর ধারা অনুযায়ী ‘যদি কোনো ব্যক্তি বিপজ্জনক বা বেপরোয়া কার্যের দ্বারা অথবা অবহেলা করে কোনো যাত্রীর জীবন বিপন্ন করে, তবে তার এক বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড অথবা জরিমানা কিংবা উভয় প্রকার দণ্ডে দণ্ডিত হতে পারে।’
 
ছাদে চড়া মানেই অপরাধ। এ অপরাধ আর প্রশ্রয় দেবে না মন্ত্রণালয়। রেলপথ মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ট্রেনের ছাদে ভ্রমণ ঝুঁকিপূর্ণ, অনিরাপদ ওদণ্ডনীয় অপরাধ। এভাবে ছাদে ভ্রমণের কারণে যে কোনো মুহূর্তে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। ফলে ভ্রমণকারীর মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। ছাদে ভ্রমণের কারণে ট্রেন চলাচলে বিলম্বিত হয়ে স্বাচ্ছন্দ্য বিঘ্নিত হয় এবং সরকারি মূল্যবান সম্পদ ক্ষতিগ্রস্ত হয়।
 
ছাদে ভ্রমণে সহযোগিতাকারীও অপরাধী উল্লেখ করে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ছাদে ভ্রমণকারী এবং ভ্রমণে উৎসাহ ও সহযোগিতা প্রদানকারী সমান অপরাধী। আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে ছাদে ভ্রমণকারীদের বিরুদ্ধে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেবে। এ অবস্থায় যাত্রীদের ছাদে ভ্রমণ না করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হয়েছে।

রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মো. শরিফুল আলম বাংলানিউজকে বলেন, ট্রেনের ছাদে চড়লেই এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হবে। ট্রেনের ছাদে চড়ার কারণে অনেকের প্রাণহানি ঘটছে। সুতরাং, অপরাধকে আমরা আর প্রশ্রয় দিতে পারি না। ১ সেপ্টেম্বর থেকে শক্ত হাতে আইন প্রয়োগ করা হবে।
 
তিনি আরও বলেন, ছাদে চড়লে কড়াকড়িভাবে আইন প্রয়োগ করবো। আমাদের ক্যাপাসিটি অনুযায়ী ট্রেনে যাত্রী ভ্রমণ করবে। আমাদের যাত্রী ধারণক্ষমতা যদি ৮শ হয়, তবে ৮শই ভ্রমণ করবে। অপরাধ আজীবন প্রশ্রয় দেওয়ার আর সুযোগ নেই।’

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৬ ঘণ্টা, আগস্ট ৩০, ২০১৯
এমআইএস/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-30 17:43:19