ঢাকা, মঙ্গলবার, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

সাক্ষ্য আইন যুগোপযোগী করতে দুদকের চিঠি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-২১ ৪:০৩:১৬ এএম
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

ঢাকা: বিচারিক কার্যক্রমে ইলেকট্রনিক রেকর্ডকে (অডিও-ভিডিও) সাক্ষ্য-প্রমাণ হিসেবে ব্যবহারের লক্ষ্যে সাক্ষ্য আইন-১৮৭২ যুগোপযোগী করার জন্য আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) দুদক সচিব মুহাম্মদ দিলোয়ার বখত স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি চিঠি মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সিনিয়র সচিব বরাবরে পাঠানো হয়। 

এতে বলা হয়েছে, দুদক আইন-২০০৪ এর তফসিলভুক্ত অপরাধসমূহ তদন্ত করে বিচারার্থে বিজ্ঞ আদালতে দাখিল করা হয়। কিন্তু সাক্ষ্য আইন-১৮৭২ এ ইলেকট্রনিক রেকর্ডেও সাক্ষ্য মূল্য সম্পর্কে স্পষ্ট কিছু বলা হয়নি। তাই প্রায়ই তদন্ত ও বিচারকালে রেকর্ডে ধারণকৃত প্রমাণপত্র জব্দ ও উপস্থাপন করা হয় না। তবে ইলেকট্রনিক রেকর্ড কম্পিউটার বিজ্ঞানের আওতাধীন। যা সাক্ষ্য আইন-১৮৭২ এর ৪৫ ধারা অনুযায়ী আদালতের মতামত গঠনের বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের মতামত প্রাসঙ্গিক।  

আরও বলা হয়েছে, টেপ রেকর্ড, টেলিফোন আলাপন ও ভিডিও ক্যাসেটে ধারণকৃত তথ্য উপাত্ত বিচারকালে প্রাসঙ্গিক মর্মে উচ্চ আদালতের সিদ্ধান্ত রয়েছে। প্রতিবেশি দেশ ভারত ইলেকট্রনিক রেকর্ডের সাক্ষ্য মূল্য প্রদানের নিমিত্ত সাক্ষ্য আইন-১৮৭২ ধারা বিভিন্ন নতুন বিধানাবলী সংযুক্ত করেছে। বর্তমান প্রেক্ষাপটে ইলেকট্রনিক রেকর্ডকে সাক্ষ্য মূল্য দেওয়া পূর্বক বাংলাদেশে বিদ্যমান সাক্ষ্য আইন-১৮৭২ এ এসংক্রান্ত নতুন বিধানাবলী সংযোজন প্রয়োজন মর্মে কমিশন মনে করে। তাই সব বিচারিক কার্যক্রমে ইলেকট্রনিক রেকর্ডকে সাক্ষ্য প্রমাণ হিসেবে ব্যবহারের নিমিত্ত সাক্ষ্য আইন-১৮৭২ যুগোপযোগী করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে চিঠিতে অনুরোধ করা হয়েছে। 

বাংলাদেশ সময়: ০৪০০ ঘণ্টা, আগস্ট ২১, ২০১৯
এসএমএকে/টিএম/এসআরএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-21 04:03:16