bangla news

৯৯৯ নম্বরে কল, উদ্ধার দুইশ’ লঞ্চযাত্রী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-১৯ ২:১৬:০৭ এএম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

মুন্সিগঞ্জ: মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুটে ডাম্প ফেরির ধাক্কায় আশিক এন্টারপ্রাইজ নামের একটি লঞ্চ চরে গিয়ে আটকে পড়েছে। পদ্মার চরে আটকে পড়া এক যাত্রী ৯৯৯ ফোন করলে লঞ্চের দুইশ’ যাত্রীকে উদ্ধার করে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

রোববার (১৮ আগস্ট) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুটের পদ্মা নদীতে লৌহজং টার্নিং পয়েন্টে কাঁঠালবাড়ী ঘাটগামী ফেরির সঙ্গে শিমুলিয়া ঘাটগামী লঞ্চের ধাক্কার ঘটনা ঘটে।

মাওয়া নৌ-পুলিশ ফাঁড়ীর ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম জানান, লঞ্চের একজন যাত্রী ৯৯৯ ফোন করে। এরপর মাওয়া নৌ-পুলিশকে জানালে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়ে যাত্রীদের উদ্ধার করা হয়। লঞ্চটির সামনের উপরের কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। শিমুলিয়া ঘাট থেকে আরেকটি লঞ্চ গিয়ে যাত্রীদের উদ্ধার করে। লঞ্চটি বর্তমানে শিমুলিয়া ঘাটে আছে বলে জানান তিনি।

বিআইডব্লিউটিএ-এর শিমুলিয়া ঘাট পরিদর্শক মো. সোলেমান জানান, মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ী ঘাট থেকে দুইশ’ যাত্রী নিয়ে আশিক এন্টারপ্রাইজ নামের লঞ্চটি মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাট আসছিল। পথিমধ্যে লৌহজং চ্যানেল সরু হয়ে যাওয়ায় কাঁঠালবাড়ী ঘাটগামী ফেরির সঙ্গে ধাক্কা লেগে লঞ্চটি পদ্মার চরে ছিটকে পড়ে। লঞ্চটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি। চ্যানেলে পানি কম থাকায় সরু হয়ে গিয়েছে তাই এই ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে আরেকটি লঞ্চের মাধ্যমে যাত্রীদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। নিখোঁজ কোনো যাত্রী নেই। লঞ্চ চলাচলে নিজস্ব কোনো চ্যানেল নেই। এখন একটি বিকল্প চ্যানেল দিয়ে ফেরি, লঞ্চ একসঙ্গে চলাচল করে। পানি কমে যাওয়ায় সরু নৌরুটের চ্যানেলে খুব সাবধানে এখন একে অপরকে অতিক্রম করে থাকে। বর্তমানে রাত ১০টা পর্যন্ত লঞ্চ চলাচল করে বলে জানান তিনি।

বিআইডব্লিউটিসি'র শিমুলিয়া ঘাটের উপ-মহাব্যবস্থাপক নাসির মোহাম্মদ চৌধুরী বলেন, লঞ্চগুলোর রাতে চলাচল করার প্রয়োজন কি? আমাদের নৌরুট ব্যবহার করে লঞ্চ চলাচল করে। বড় ডাম্প ফেরি লঞ্চের উপর এসে ধাক্কা লেগে চরের দিকে চলে যায়। লঞ্চের ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ০২১৪ ঘণ্টা, ১৯ আগস্ট, ২০১৯
এমএইচএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2019-08-19 02:16:07