ঢাকা, বুধবার, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

নবীনদের মধ্যে বঙ্গবন্ধুর চেতনা সঞ্চারিত করতে হবে

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-১৫ ৭:৪০:২৬ পিএম
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোকদিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোকদিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা

ঢাকা: বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে নবীন সরকারি কর্মকর্তাদের মধ্যে ইতিহাসের চেতনা সঞ্চারিত করতে হবে বলে জানিয়েছেন সাবেক আমলা ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী।

জাতীয় শোকদিবসে বৃহস্পতিবার (১৫ আগস্ট) ঢাকার শাহবাগ বিসিএস প্রশাসন একাডেমিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোকদিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় এ আহ্বান জানানো হয়।
 
‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটি’র প্রধান সমন্বয়ক ও সাবেক মুখ্য সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী মুখ্য আলোচক হিসাবে বক্তব্য রাখেন।
 
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে যতই আলোচনা হবে আমরা ততই ইতিহাসের দিকে যাত্রা করবো। সরকারি কর্মকর্তাদের মধ্যে বঙ্গবন্ধুসহ বাংলাদেশের ইতিহাসের চেতনা সঞ্চারিত করতে হবে।
 
কামাল নাসের বলেন, বঙ্গবন্ধু ও তার যে ত্যাগ যারা প্রত্যক্ষ করেছেন তারা তাদের সময়ের চোখ দিয়ে তা দেখেছেন। বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ যখন আমি শুনি উদ্দীপ্ত হই, আমার ভিতর আবেগ কাজ করে এবং সে আবেগ ভিন্ন মাত্রায় সঞ্চারিত হয়। কিন্তু বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আজ তরুণ প্রজন্মের একজন কর্মকর্তার কাছে আবেগ সেভাবে সঞ্চারিত হয় না, এটাই বাস্তব।
 
তিনি বলেন, তার ত্যাগ, অর্জন, গৌরব, তার যে সুখ্যাতি সব কিছু আমরা ধারণ করে স্বতঃস্ফূর্তভাবে দেশে-বিদেশে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করতে চাই। কারণ, আমাদের ইতিহাসের শ্রেষ্ঠতম মানুষকে সম্মান দিতে চেয়েছি।
 
‘বঙ্গবন্ধু বিশ্ব নেতা হিসেবে তার প্রাসঙ্গিকতা ও এই সময়ে বঙ্গবন্ধুর যে প্রয়োজন আছে সেটা আমাদের দেশে এবং বিশ্ববাসীর কাছে আন্তর্জাতিক কর্মসূচি হাতে নিতে চাই। এজন্য প্রকাশনা থেকে শুরু করে বঙ্গবন্ধুর ভালো জীবনী রচনা করা দরকার, যেটা বাইরের লোকজনও পড়তে পারে। আমরা চেষ্টা করছি বিগ বায়োগ্রাফি করার জন্য। বঙ্গবন্ধুকে বাইরে থেকে প্রকাশনার কাজ হচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর উপরে অনেকগুলো লেখা, বাইরের প্রকাশনীর সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। কিছু কিছু প্রকাশনীর সম্মতিও পেয়েছি। মুজিববর্ষে কিছু ভালো প্রকাশনা করতে পারি যাতে সারা পৃথিবীতে আমরা নতুন করে বঙ্গবন্ধুর ভাবমূর্তিকে আরো সমুন্নত করতে পারি।’
 
কামাল নাসের বলেন, একাত্তর সালে বঙ্গবন্ধু সারা পৃথিবীতে ছিলেন পোয়েট অব পলিটিক্স, রাজনীতির কবি। সেই রাজনীতির কবি আজ নতুন সময়ে এসে কীভাবে বিশ্ব জনগোষ্ঠীর সঙ্গে প্রাসঙ্গিক হবেন, সে বিষয়গুলি তার জীবনী বা ইতিহাস যদি তুলে ধরতে না পারি বা সেভাবে প্রকাশনা না থাকে তাহলে আমরা করতে পারবো না। 

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব ফয়েজ আহম্মদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আলোচক ছিলেন লে. কর্নেল (অব.) কাজী সাজ্জাদ আলী জহির। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিসিএস প্রশাসন একাডেমির রেক্টর কাজী রওশন আক্তার।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৮ ঘণ্টা, আগস্ট ১৫, ২০১৯
এমআইএইচ/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-15 19:40:26