ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ আগস্ট ২০১৯
bangla news

ভারতে পাচার হওয়া ৭ নারী-শিশুকে বেনাপোলে হস্তান্তর

উপজেলা করেসপন্ডেট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-১৪ ৯:১২:৩৬ পিএম
ফেরত আসা নারীরা। ছবি: বাংলানিউজ

ফেরত আসা নারীরা। ছবি: বাংলানিউজ

বেনাপোল (যশোর): ভালো কাজের প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন সময় ভারতে পাচার হওয়া সাত বাংলাদেশি নারী ও শিশুকে স্বদেশ প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ায় ফেরত পাঠিয়েছে ভারত সরকার। 

বুধবার (১৪ আগস্ট) সন্ধ্যা ৬টার দিকে কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ ও বিএসএফ সদস্যরা তাদের যৌথভাবে বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন পুলিশ ও বিজিবি সদস্যদের হাতে তুলে দেয়।

রাইটস যশোর নামে একটি এনজিও সংস্থা সেখান থেকে তাদের পরিবারের কাছে পৌঁছে দিতে নিজেদের জিম্মায় নিয়েছে।

ফেরত আসা বাংলাদেশিরা হলেন- ঝিনাইদাহের ময়না, পিরোজপুরের সনিয়া, ময়মনসিংহের বিলকিস, কক্সবাজারের ইসমোতারা, খুলনার নিপা, নড়াইলের লিমা ও শিশু আমান।

পাচারের শিকার ময়না বলেন, ভালো কাজের কথা বলে তাকে সীমান্ত পথে ভারতে নিয়ে যায় দালালরা। পরে অনুপ্রবেশের অভিযোগে ভারতীয় পুলিশ তাকে আটক করে জেলে পাঠায়। সেখান থেকে একটি এনজিও সংস্থা তাকে ছাড়িয়ে নিজেদের শেল্টার হোমে রাখে। তিন বছর পর তিনি বাড়ি ফিরছেন।

এনজিও সংস্থা যশোর রাইটসের তথ্য ও অনুসন্ধান কর্মকর্তা তৌফিকুজ্জামান জানান, দুই দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যোগাযোগের মাধ্যমে তাদের স্বদেশ প্রত্যাবাসন আইনে ফেরত আনা হয়েছে। তারা যদি পাচারকারীদের শনাক্ত করে মামলা করতে চায়, তাহলে আইনি সহায়তা দেওয়া হবে।

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল বাশার বাংলানিউজকে জানান, কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে তাদের পোর্টথানা পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। তারা পরবর্তী ব্যবস্থা নেবে।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৯ ঘণ্টা, আগস্ট ১৪, ২০১৯
আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   যশোর
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-14 21:12:36