bangla news

মাগুরায় সংঘর্ষে আ’লীগ কর্মী নিহত, আটক ১০

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-১৪ ৭:৫০:৪৪ পিএম
কবিরের মরদেহ দেখতে হাসপাতালে স্বজনদের ভিড়। ছবি: বাংলানিউজ

কবিরের মরদেহ দেখতে হাসপাতালে স্বজনদের ভিড়। ছবি: বাংলানিউজ

মাগুরা: মাগুরা সদর উপজেলায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে মীর করিব আলী (৪০) নামে এক আওয়ামী লীগ কর্মী নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও ১৫ জন।

বুধবার (১৪ আগস্ট) বিকেলে উপজেলার সিংহডাঙ্গা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মাগুরা সদর উপজেলা শত্রুজিৎপুর ইউনিয়ের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতি সিংহডাঙ্গা গ্রামের খোরশেদ মীরের সঙ্গে একই ওয়ার্ড বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক বিল্লাল হোসেনের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এ বিরোধের জেরে সকালে স্থানীয় বাজারের একটি চায়ের দোকানে দুই পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে পাট ধোঁয়ার সময় বিল্লালের সমর্থকরা দেশিয় অস্ত্র নিয়ে খোরশেদের ভাই আওয়ামী লীগ কর্মী কবিরকে কুপিয়ে জখম করে। পরে দুই পক্ষের মধ্যে হামলা-পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় উভয় পক্ষের ১৫ জন আহত হন। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁচ্ছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১০ জনকে আটক করে। আহতদের মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় কবিরসহ ১৪-১৫ জনকে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক কবিরকে মৃত ঘোষণা করেন। মুমূর্ষু অবস্থায় অবেদ আলী নামে একজনকে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অন্যরা মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, সংঘর্ষের খবর পেয়ে শত্রুজিৎপুর ক্যাম্প ও সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। এ সময় পুলিশ ১০ জনকে আটক করেছে। বর্তমানে ওই এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫০ ঘণ্টা, আগস্ট ১৪, ২০১৯
আরআইএস/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-14 19:50:44