ঢাকা, শনিবার, ২ ভাদ্র ১৪২৬, ১৭ আগস্ট ২০১৯
bangla news

কাঁচা চামড়া রপ্তানির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার দাবি বিটিএ’র

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-১৪ ১১:৫২:১০ এএম
বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের সংবাদ সম্মেলন

বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের সংবাদ সম্মেলন

ঢাকা: কাঁচা চামড়া রপ্তানির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিটিএ) 

বুধবার (১৪ আগস্ট) বেলা ১১টায় ধানমন্ডি ৭ নম্বরে নিজস্ব কার্যালয়ে ঈদুল আজহায় চামড়ার সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনের শুরুতেই লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশের সভাপতি মো. শাহিন আহমেদ। 

সংবাদ সম্মেলনে বিটিএ সভাপতি বলেন, আমরা ২০ আগস্ট থেকে চামড়া সংগ্রহ শুরু করবো। সেই সময় চামড়ার বাজার স্থিতিশীল থাকবে। আশা করছি এই সময়ের মধ্যে সরকার তার সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসবে।

তিনি আরো বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় কাঁচা চামড়া রপ্তানির সুযোগ দিতে যাচ্ছে। এরফলে শতভাগ দেশীয় এই শিল্প হুমকির মুখে পড়বে। চামড়া শিল্পনগরীতে সাত হাজার কোটি টাকার বিনিয়োগ ঝুঁকির সম্মুখীন হবে। সাভারের আধুনিক চামড়া শিল্পনগরী প্রয়োজনীয় কাঁচা চামড়ার অভাবে সম্পূর্ণ অকেজো হয়ে পড়বে। এই শিল্পের সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত জনগোষ্ঠী বেকার হয়ে পড়বে, ফলে শ্রমিক অসন্তোষ দেখা  দেবে। সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নেওয়া কাঁচা চামড়া রপ্তানির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি। 

সিন্ডিকেট করে একটি চক্র চামড়ার দাম কমিয়ে দিচ্ছে। বর্তমানে চামড়ার এই অবস্থার জন্য ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন জড়িত কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে সংগঠনের সভাপতি বলেন, আমরা কখনো কাঁচা চামড়া ক্রয় করি না। পাঁচ থেকে ছয় জনের হাতবদল হয়ে তারপর আমাদের কাছে চামড়া আসে। সুতরাং কাঁচা চামড়ার এই দরপতনের সঙ্গে কোনোভাবেই বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন জড়িত নয়।  

তিনি আরো বলেন, আমরা যদি আমাদের দেশীয় চামড়া থেকে তৈরি জুতা, মানিব্যাগ, বেল্ট ব্যবহার করি তাহলে আমাদেরকে কাঁচা চামড়া বিদেশে রপ্তানি করার প্রয়োজন হবে না। সেই সঙ্গে আমাদের এই দেশীয় শিল্পে স্থিতিশীল পরিস্থিতি বিরাজ করবে। 

চামড়া বিক্রেতাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা যারা চামড়া সংগ্রহ করেছেন, তারা যদি চামড়ায় লবণ দিয়ে সঠিকভাবে সংরক্ষণ করেন, তাহলে সরকার নির্ধারিত দামেই আমরা সে চামড়াগুলো আপনাদের কাছ থেকে ক্রয় করবো। তাই আপনাদের কাছে অনুরোধ চামড়া নষ্ট না করে, ফেলে না দিয়ে, লবণ দিয়ে সংরক্ষণ করুন।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত উল্লাহ, ট্রেজারার মিজানুর রহমান, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ইলিয়াসুর রহমান বাবু, উপদেষ্টা শামসুল ইসলাম হুদু প্রমুখ।

এর আগে মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ বকসী জানান, উপযুক্ত মূল্য নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কাঁচা চামড়া রপ্তানির অনুমতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

মন্ত্রণালয় জানায়, বিভিন্ন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যমতে লক্ষ্য করা যাচ্ছে, নির্ধারিত মূল্যে কোরবানির পশুর চামড়া কেনাবেচা হচ্ছে না। এ বিষয়ে চামড়াশিল্পের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যবসায়ীর দায়িত্বশীল হওয়ার আহ্বান জানানো হচ্ছে।

একইসঙ্গে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় নির্ধারিত মূল্যে কাঁচা চামড়া বেচাকেনা নিশ্চিত করতে ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা চাওয়া হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১১৫০ ঘণ্টা, আগস্ট ১৪, ২০১৯ 
আরকেআর/জেডএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ঈদুল আজহা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-14 11:52:10