ঢাকা, সোমবার, ৮ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

ঝাড়ু হাতে মেয়র আতিকের ভাইরাল ছবি ২০১৮ সালের!

শাওন সোলায়মান, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-০৬ ৮:১৯:০৯ এএম
ঝাড়ু হাতে ডিএনসিসির মেয়র আতিকুল ইসলাম।

ঝাড়ু হাতে ডিএনসিসির মেয়র আতিকুল ইসলাম।

ঢাকা: সাম্প্রতিক সময়ে পরিষ্কার সড়কে এডিস মশার প্রজননস্থল নিধন করতে ঝাড়ু হাতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলামের যে ছবিটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে সেটি সাম্প্রতিক সময়ে তোলা নয়। এটি প্রায় দেড় বছর আগের তোলা একটি ছবিটি।

সম্প্রতি একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। ছবিতে দেখা যায়, দেশের চলচ্চিত্র অঙ্গনের বেশ কয়েকজন শিল্পীকে নিয়ে একটি সড়কে ঝাড়ু দিচ্ছেন মেয়র আতিকুল ইসলাম। ছবিতে তার সঙ্গে রয়েছেন মিশা সওদাগর, রোজিনা, ডিপজল, পপি এবং রিয়াজসহ বিভিন্ন তারকাকে দেখা যায়।

সবাই ঝাড়ু হাতে সড়ক পরিষ্কার করছিলেন। নেটিজেনরা বলছেন, ছবিটি সাম্প্রতিক সময়ে তোলা এবং ডেঙ্গু রোগের ভাইরাস বাহক এডিস মশার প্রজননস্থল ধ্বংস করার প্রতীকী পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচির একটি মুহূর্তের ছবি সেটি।

পরিষ্কার ও শুকনো স্থানে এডিস মশার প্রজননস্থল ধ্বংস করার এমন উদ্যোগ নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে ফেসবুক, টুইটারের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে।

তবে সিটি করপোরেশনসহ ভিন্ন কয়েকটি সূত্র বলছে, ছবিটি সাম্প্রতিক সময়ের নয় এবং এডিস মশার প্রজননস্থল ধ্বংসের কার্যক্রমও ছিল না সেটি। নাসির উদ্দিন তন্ময় নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে আরও কিছু ছবি এবং ভিডিও প্রকাশ করে দাবি করা হচ্ছে, ২০১৮ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি ধারণ করা হয় ছবিটি।ঝাড়ু হাতে ডিএনসিসির মেয়র আতিকুল ইসলাম।সেদিন ডিএনসিসির হতে যাওয়া নির্বাচনের (যদিও পরে এক রিটের প্রেক্ষিতে উচ্চ আদালতের নির্দেশে স্থগিত হয় নির্বাচন) প্রচারণা চালাতে গিয়ে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমে অংশ নেন তৎকালীন নির্বাচনের মেয়র পদপ্রার্থী আতিকুল ইসলাম।

নাসিরের এমন দাবির প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া যায় বাংলানিউজের অনুসন্ধানেও। ওইদিন (২০১৮ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর কারওয়ান বাজারে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন এবং বাংলাদেশ চলচিত্র শিল্পী সমিতির যৌথ উদ্যোগে পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক এক সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

ওই সেমিনার শেষেই চলচ্চিত্র শিল্পী ও তারকাদের নিয়ে বনানীর একটি সড়কে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমে অংশ নেন আতিকুল ইসলাম। সেই কর্মসূচি নিয়ে একই দিন পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন ঢাকা গড়ার অঙ্গীকার আতিকুলের’ শিরোনামে প্রতিবেদনও প্রকাশ করে বাংলানিউজ।

নাসিরের প্রকাশিত ছবি ও ভিডিও এবং বাংলানিউজে প্রকাশিত প্রতিবেদন ও ছবির সঙ্গে ভাইরাল হওয়া ছবির তুলনা করলে সেগুলোতে মিল পাওয়া যায়। ভাইরাল হওয়া ছবিতে ‘পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ’ লেখা সাদা রঙের টি-শার্টের নিচে আতিকের গায়ে গোলাপী রঙের পাঞ্জাবি দেখা যায়।

একই টি-শার্ট এবং পাঞ্জাবি দেখা যায় নাসির উদ্দিন তন্ময় এবং বাংলানিউজে প্রকাশিত ছবিতেও। একই ভাবে ভাইরাল হওয়া ছবিতে আতিকের সঙ্গে খয়েরি রঙের পাঞ্জাবি পরিহিত অবস্থায় মিশা সওদাগর এবং লাল পোশাকে দেখা যায় চিত্রনায়িকা পপিকে।

নাসিরের প্রকাশিত ও বাংলানিউজের তোলা ছবিতেও একই পোশাকে দেখা যায় এই দুই তারকা শিল্পীদের। মেয়র আতিকের সমর্থকেরা দাবি করছেন, মেয়রকে এবং ডেঙ্গু প্রতিরোধে মেয়রের নেওয়া বিভিন্ন কার্যক্রমকে প্রশ্নবিদ্ধ করতেই পুরনো একটি ছবি নিয়ে গুজব ছাড়ানো হচ্ছে।

প্রায় দেড়বছর আগের পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমের একটি অংশকে সাম্প্রতিক সময়ে ডেঙ্গু প্রতিরোধের কার্যক্রম বলে প্রচার করে মেয়র আতিকের ‘ইমেজ’ ক্ষুণ্ন করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

এসব বিষয়ে ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, যেটা সত্য, সেটা সত্য হিসেবেই প্রকাশিত হোক। আমি যে কাজ করিনি তা কেন বলা হবে? যদি আমি এমন করতাম আর তখন সমালোচনা করা হতো আমি মেনে নিতাম, ক্ষমা চাইতাম। ওই অনুষ্ঠানে আমাকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। কিন্তু আমি যাইনি। কারণ আমার মনে হয়েছে এখানে থেকে কাজ করা দরকার।

‘আমি যেকাজ করিনি সেটা কে ইস্যু বানানো হচ্ছে তার মানে অবশ্যই আমাকে হেয় করার জন্য করা হচ্ছে। শুধু আমাকে না বরং পুরো সিটি করপোরেশনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করা হচ্ছে। আমি জনগণের ও সকল গণমাধ্যমকর্মীদের সাহায্য চাই। তারা যেন আসল ঘটনাকে দেখান এবং তুলে ধরেন।’  

বাংলাদেশ সময়:০৮১৯ ঘণ্টা, আগস্ট ০৬,২০১৯
এসএইচএস/এমএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-06 08:19:09