bangla news

ঢাকায় গণপিটুনিতে যুবকের মৃত্যু, পুলিশ-শ্রমিক সংঘর্ষ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-২৫ ৮:০৫:১১ পিএম
অবরোধের ফলে রামপুরা সড়কে সাড়ে তিন ঘণ্টা বন্ধ ছিল যান চলাচল। ছবি: বাংলানিউজ

অবরোধের ফলে রামপুরা সড়কে সাড়ে তিন ঘণ্টা বন্ধ ছিল যান চলাচল। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: রাজধানীর রামপুরায় চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের দাবিতে করা সড়ক অবরোধে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়েছে পোশক শ্রমিকরা। পুলিশ লাঠিচার্জ করে শ্রমিকদের সরিয়ে দেওয়ার আগ পর্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কে প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ ছিল।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) গণপিটুনিতে শ্রমিক নিহতের প্রতিবাদে পোশাক শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করলে এসব ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম দেলোয়ার।

প্রত্যক্ষদর্শী এক শ্রমিক নাম প্রকাশ না করার শর্তে বাংলানিউজকে বলেন, সকালে রামপুরার হাজিপাড়ার ইজি গার্মেন্টে দেলোয়ার নামে এক শ্রমিককে চোর সন্দেহে গণপিটুনি দেওয়া হয়। এতে সে মারা যায়। কিন্তু দেলোয়ার চোর ছিল না। সে ইস্ট ফ্যাশন গার্মেন্টের কার্টিং সহকারী ছিল। যারা দেলোয়ারকে হত্যা করেছে তাদের গ্রেফতারের দাবিতে আমরা সড়ক অবরোধ করি।

জানা যায়, হত্যার প্রতিবাদ ও জড়িতদের গ্রেফতার দাবিতে শ্রমিকরা দুপুর ২টার পর রামপুরার আবুল হোটেল থেকে হাজিপাড়ার সড়কে অবস্থান নেয়। বিকেল ৫টার দিকে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে তারা। পরে পুলিশ লাঠিচার্জ করে শ্রমিকদের রাস্তা থেকে সরিয়ে দিলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও ডিভিশনের উপপুলিশ কমিশনার (ডিসি) আনিসুর রহমান জানান, বিকেলে অবরোধকারীরা ইজি গার্মেন্টে হামলা চালায়। পরে পুলিশ লাঠিচার্জ ও ফাঁকা শটগানের গুলি ছুড়লে শ্রমিকরা রাস্তা থেকে সরে যায়। এ ঘটনায় ইজি গার্মেন্টের তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে।

হাতিরঝিল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইকবাল হোসেন বাংলানিউজকে জানান, এক শ্রমিকের মৃত্যুর সংবাদে তারা সড়ক অবরোধ করেছিল। সাড়ে পাঁচটা নাগাদ যান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। ঘটনাস্থলে আমাদের ওসি স্যার একটু মাথায় আঘাত পেয়েছেন। শ্রমিকরা কেউ আহত হয়নি।

বাংলাদেশ সময়: ২০০২ ঘণ্টা, জুলাই ২৫, ২০১৯
এমএমআই/এজেডএস/এইচএডি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   সংঘর্ষ পুলিশ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-25 20:05:11