ঢাকা, সোমবার, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

গাজীপুর থেকে ঢাকা পর্যন্ত যানজট জাতীয় সমস্যা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-১৮ ২:৫০:১৩ পিএম
মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। ফাইল ফটো

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। ফাইল ফটো

ঢাকা: গাজীপুর থেকে ঢাকার মহাসড়কে যানজট সমস্যাকে স্থানীয় সমস্যা নয় বরং জাতীয় সমস্যা বলে উল্লেখ করেছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে গাজীপুর উন্নয়ন পরিষদের আয়োজনে ‌‌‘আধুনিক গাজীপুরের উন্নয়নের চ্যালেঞ্জ ও করণীয়: জনপ্রতিনিধি ও পেশাজীবীদের ভূমিকা’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, গাজীপুরের যানজট সমস্যা স্থানীয় সমস্যা নয় বরং এটি একটি জাতীয় সমস্যা। দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে গাজীপুর পর্যন্ত পৌঁছাতে সময় লাগে তিন থেকে চার ঘণ্টা। আর ঠিক এ গাজীপুর থেকে ঢাকায় আসতে তার থেকেও বেশি সময় লাগে। এ সমস্যা নিরসনে গাজীপুর থেকে এয়ারপোর্ট পর্যন্ত ২০ কিলোমিটার প্রধান সড়কের কাজ প্রক্রিয়াধীন। চায়না কোম্পানির গাফিলতির কারণে তা একটু দেরি হচ্ছে। তবে খুব দ্রুতই এর কাজ শেষ হবে। কাজ শেষ হলে জনগণ এর সুফল পেতে থাকবেন।

এ সময় গাজীপুরের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড নিয়ে মোজাম্মেল হক বলেন, বনভূমি রক্ষা, বর্জ্য নিঃসারণ এবং নদী রক্ষায় সরকার বিভিন্নভাবে গাজীপুরের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে সরকার পরিকল্পনা নিয়ে ৮ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প পাস করেছে। এখন শুধু সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে কাজগুলো করতে হবে।

সিটি করপোরেশন ও গাজীপুরের স্থানীয় হাসপাতালগুলোতে জনবলের অভাব থাকার কথা উল্লেখ করে সেগুলো আগামী এক বছরের মধ্যে নিরসন করা হবে বলেও এ সময় জানান মন্ত্রী।

ঢাকার প্রধান চারটি নদীতে বর্জ্য না ফেলার জন্য শিল্পপতিদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মোজাম্মেল হক বলেন, নদী রক্ষায় সরকার শক্ত অবস্থানে রয়েছে। নদীর নাব্যতা রক্ষায় কেবিনেটে বিভিন্ন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে এবং তা বাস্তবায়নের কাজ চলছে। আপনারা দেখেছেন, নদীর পাশের বসতি উচ্ছেদ করতে গিয়ে ম্যাজিস্ট্রেটদের লাঞ্ছনার মুখে পড়তে হয়েছে। তবুও ঢাকার প্রধান চারটি নদীসহ দেশের অন্য নদীগুলো রক্ষায় সরকার বদ্ধপরিকর।

গাজীপুরে উন্নয়ন বিষয়ক এ গোলটেবিল বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য শামসুন্নাহার ভূঁইয়া। 

আলোচনায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন লায়ন মো. গণি মিয়া বাবুল। এ সময় গাজীপুরের বিভিন্ন গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৪ ঘণ্টা, জুলাই ১৮, ২০১৯
এইচএমএস/আরবি/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-18 14:50:13