ঢাকা, শুক্রবার, ৮ ভাদ্র ১৪২৬, ২৩ আগস্ট ২০১৯
bangla news

বেচে দেওয়া নবজাতককের ঠাঁই ছোটমনি নিবাসে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-১৭ ৯:১৪:৪১ পিএম
পুলিশ সদস্যের কোলে নবজাতক। ছবি: বাংলানিউজ

পুলিশ সদস্যের কোলে নবজাতক। ছবি: বাংলানিউজ

বরিশাল: পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে জন্মের পরে বিক্রি করা নবজাতকের ঠাঁই মিলছে বরিশালের আগৈলঝড়া উপজেলার ছোটমনি নিবাসে।

বুধবার (১৭ জুলাই) সকালে আগৈলঝাড়া উপজেলার গৈলায় সমাজসেবা অধিদপ্তরের শিশু লালন কেন্দ্র বিভাগীয় বেবীহোম ছোটমনি নিবাসে তাকে পাঠানো হয়। 

সমাজসেবা অধিদপ্তরের প্রবেশন অফিসার জাকির হোসেন হাওলাদার এ তথ্য জানিয়েছেন। 

এর আগে মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) দুপুরে শিশুটিকে লালন-পালনের দায়িত্ব সমাজসেবা বিভাগের কাছে অর্পণ করে বিভাগীয় বেবিহোমে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।  

গত ১৪ জুলাই দুপুরে এক গর্ভবতী নারী নিজেকে সেলিনা (৩৫) পরিচয় দিয়ে একাই পিরোজপুর হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে ভর্তি রেজিস্ট্রারে  উল্লেখ করা হয়, তিনি বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলার বড় জামুয়া গ্রামের মোশাররফ হোসেনের স্ত্রী। 

পরে ওইদিন বিকেলে স্বাভাবিকভাবেই তিনি একটি কন্যা সন্তান জন্ম দেন। কিন্তু পরদিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন একটি পরিবারের কাছে টাকার বিনিময়ে শিশুটিকে বিক্রি করে চলে যান সেলিনা। 

পরে আর ওই নারীর কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ শুনে পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে শিশুটিকে তাদের হেফাজতে নেয় এবং হাসপাতালে রেখেই সমাজসেবা অধিদফতরের মাধ্যমে শিশুটির খাবার ও চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়।

পরবর্তীতে শিশুটিকে সরকারিভাবে লালন পালনের জন্য আদালতের দ্বারস্ত হন সংশ্লিষ্টরা।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৩ ঘণ্টা, জুলাই ১৭, ২০১৯
এমএস/এমএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বরিশাল
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-17 21:14:41