bangla news

সুরমার পানি অপরিবর্তিত, বাড়ছে হাওরে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-১৩ ৮:১১:৪১ পিএম
সুরমার পানি অপরিবর্তিত, বাড়ছে হাওরে। ছবি বাংলানিউজ

সুরমার পানি অপরিবর্তিত, বাড়ছে হাওরে। ছবি বাংলানিউজ

সুনামগঞ্জ: সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। দিনভর মুষলধারে বৃষ্টি অব্যাহত রয়েছে। সুরমা নদীর পানি বাড়ার পরিমাণ অপরিবর্তিত থাকলেও হাওরের পানি বেড়েই চলছে। শনিবার (১৩ জুলাই) বিকেল ৩টা পর্যন্ত সুরমা নদীর পানি বিপদসীমার ৮৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। 

পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) তথ্য মতে, গেলো ২৪ ঘণ্টায় জেলায় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ৮৫ মিলিমিটার।

এদিকে, হাওরাঞ্চলে পানি বাড়ার ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন জেলার ১৩ হাজার ১শ’ পরিবার। বিশেষ করে তাহিরপুর বিশ্বম্ভরপুর ও দোয়ারাবাজার উপজেলার মানুষজন হয়ে পড়েছে পানিবন্দি। তাছাড়া গত ৮ জুলাই (সোমবার) থেকেই তাহিরপুর ও ৯ জুলাই (মঙ্গলবার) থেকে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

সুনামগঞ্জ শহরের নবীনগর এলাকায় একটি বাঁধ ভেঙে পানি ঢুকে পড়ায় লক্ষাধিক মানুষের চলাচলের দুর্ভোগ সৃষ্টি হয়েছে। 

তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট এলাকার নন্দন রায় বাংলানিউজকে বলেন, আজ ছয়দিন হল
পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছি। আমাদের এখানে এখনো কোনো রকমের ত্রাণ আসেনি। পরিস্থিতি এতোই খারাপ যে বাইরে গিয়ে খাবার নিয়ে আসবো, তাও সম্ভব হচ্ছে না।

শহরের নবীনগর এলাকার বাসিন্দা দিলাল আহমদ বাংলানিউজকে বলেন, পাহাড়ি ঢল ও সুরমার পানি বাড়ায় আমাদের এখানকার একটি বাঁধ ভেঙে গেছে। ফলে এ বাঁধ দিয়ে নবীনগর থেকে শুরু করে তিনটি ইউনিয়নের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে।

পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বক্কর সিদ্দিক বাংলানিউজকে বলেন, রাতে বৃষ্টি না হওয়ায় সুরমার পানি বাড়েনি। কিন্তু সকাল থেকে মুষলধারে বৃষ্টি হওয়ায় পানি বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

জেলা প্রশাসক (ডিসি) মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ বাংলানিউজকে বলেন, জেলার সব জায়গায় আমাদের জরুরি টিম গঠন করা হয়েছে। যেসব এলাকার মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, সেসব এলাকায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের (ইউএনও) মাধ্যমে শুকনা খাবার দেওয়া হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৮ ঘণ্টা, জুলাই ১৩, ২০১৯
এসআরএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   সুনামগঞ্জ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-13 20:11:41