ঢাকা, মঙ্গলবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৩ জুলাই ২০১৯
bangla news

টঙ্গীতে স্কুলছাত্র হত্যায় প্রধান আসামিসহ গ্রেফতার ৪

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-১২ ২:২৬:২৬ পিএম
প্রতীকী

প্রতীকী

গাজীপুর: গাজীপুর সিটি করপোরেশনের টঙ্গীর বিসিক এলাকায় স্কুলছাত্র শুভ আহম্মেদ (১৫) হত্যা মামলার প্রধান আসামিসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১।

শুক্রবার (১২ জুলাই) দুপুরে র‌্যাব-১ এর সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। 

গ্রেফতাররা হলেন- পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া থানার পাঠাকাটা এলাকার মো. মহিউদ্দিনের ছেলে মামলার প্রধান আসামি মৃদুল হাসান পাপ্পু খান (১৬), গাজীপুর সিটি করপোরেশনের টঙ্গী পূর্ব থানার পাগার ফকির মার্কেট এলাকার মো. হাবিবুর রহমানের ছেলে সাব্বির আহমেদ (১৬), একই এলাকার মো. নুরুল ইসলাম খোকনের ছেলে রাব্বু হোসেন রিয়াদ (১৬) ও আলতাফ উদ্দিনের ছেলে নূর মোহাম্মদ রনি (১৬)। মৃদুল হাসান পাপ্পু টঙ্গীর পাগার এলাকার কামাল পাঠানের বাসায় পরিবারের সঙ্গে ভাড়া থাকেন। গ্রেফতারকৃত সবাই ফিউচার ম্যাক স্কুলের শিক্ষার্থী। 

নিহত স্কুল ছাত্র শুভ আহম্মেদ টঙ্গীর ফকির মার্কেট এলাকার রাজু মিয়ার ছেলে। শুভ ওই এলাকায় ফিউচার ম্যাক স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র ছিল। 

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, গত রোববার (০৭ জুলাই) দিনগত রাত ৯টার দিকে স্কুলছাত্র শুভ আহম্মেদ তার মাথার চুল কাটাতে সেলুনের উদ্দেশে বাসা থেকে বের হয়। পরে টঙ্গীর বিসিক ফকির মার্কেট এলাকায় শুভ আহম্মেদকে আসামিরা কুপিয়ে হত্যা করে। এ ঘটনায় নিহতের বাবা রাজু আহম্মেদ টঙ্গী পূর্ব থানায় মৃদুল হাসান পাপ্পু এবং অজ্ঞাতনামা ৫/৬ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। 

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন এলাকায় র‌্যাব-১ এর সদস্যরা অভিযান চালান। এ সময় প্রধান আসামি মৃদুল হাসান পাপ্পু, সাব্বির আহমেদ, রাব্বু হোসেন রিয়াদ ও নূর মোহাম্মদ রনিকে গ্রেফতার করে। এছাড়া হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত একটি সুইস গিয়ার চাকু উদ্ধার করা হয়েছে।

জানা যায়, হত্যার একদিন আগে ভিকটিম শুভ আহম্মেদের সঙ্গে স্থানীয় কিশোর গ্যাং গ্রুপের সদস্যদের ঝগড়া ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতাররা হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। 

বাংলাদেশ সময়: ১৪২৩ ঘণ্টা, জুলাই ১২, ২০১৯
আরএস/জেডএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-12 14:26:26