ঢাকা, মঙ্গলবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৩ জুলাই ২০১৯
bangla news

গাজীপুরে অপহরণ, জ্ঞান ফেরায় পালিয়ে বাঁচলো ১ ছাত্রী

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-১১ ১২:১৩:২৯ এএম
প্রতীকী

প্রতীকী

রাজশাহী: গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলা থেকে স্কুল যাওয়ার পথে মাইক্রোবাসে উঠিয়ে তিন স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বুধবার (১০ জুলাই) সকাল ৯টার দিকে উপজেলার শান্তিনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। অপহরণের পর রাতে মাইক্রোবাসটি রাজশাহী পৌঁছে। শহরের প্রবেশমুখ তালাইমারী এলাকায় হালকা যানজট সৃষ্টি হলে ওই মাইক্রোবাসের গতি মন্থর হয়। এ সময় তিন স্কুলছাত্রীর মধ্যে জ্ঞান ফিরে পাওয়া এক ছাত্রী ওই মাইক্রোবাস থেকে লাফ দেয়। 

এরপর ওই ছাত্রী একটি ফার্মেসির দোকানে দাঁড়িয়ে ঘটনা খুলে বলে। এ সময় মতিহার থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। তাকে পুলিশি হেফাজতে নেওয়ার পর গোটা শহরে মাইক্রোবাসটির খোঁজে পুলিশ অভিযান শুরু করে। বর্তমানে শহরের বিভিন্ন স্থানে চেকপোস্ট বসিয়ে সন্দেহজনক যানবাহনে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। 

রাজশাহীতে উদ্ধার হওয়া মেয়েটির বয়স ১৪ বছর। সে গাজীপুরের একটি স্কুলের সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী। তার বাড়ি শ্রীপুরের শান্তিনগর এলাকায়। তার সঙ্গে অপহরণ হওয়া ওপর দুই শিক্ষার্থীর নাম-পরিচয় পেয়েছে পুলিশ। তারাও এই শিশুটির সঙ্গেই একই শ্রেণিতে পড়াশোনা করে।

পুলিশকে দেওয়া ওই ছাত্রীর ভাষ্য অনুযায়ী, সকাল নয়টার দিকে তারা বাড়ি থেকে স্কুলে যাচ্ছিল। পথে একটি মাইক্রোবাস তাদের গাতিরোধ করে। এ সময় তিনজনকে সাদা রঙের একটি হায়েস মাইক্রোবাসে তুলে নেওয়া হয়। এরপর তার আর জ্ঞান ছিল না। জ্ঞান ফেরার পরে গাড়িটি এক জায়গায় দাঁড়ালে সে দরজা খুলে লাফ দিয়ে নেমে দৌড় দেয়। পরে সে জানতে পারে সে রাজশাহীতে। লাফ দেওয়ার সময় তার দুই সহপাঠী অচেতন অবস্থায় ছিল। তারাও স্কুল ড্রেস পরিহিত অবস্থায় রয়েছে। রাতে মতিহার থানা পুলিশ ওই ছাত্রীকে তার মায়ের সঙ্গে কথা বলিয়েছে। পরিবারটি এরইমধ্যে রাজশাহীর উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (সদর) গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান, সাদা রংয়ের হায়েস মাইক্রোবাসটির সন্ধানে পুলিশ তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে। রাজশাহীর প্রতিটি চেকপোস্টে সাদা রংয়ের মাইক্রোবাসকে থামাতে বলা হয়েছে। 

আশপাশের জেলাতেও বেতার বার্তা পাঠানো হয়েছে। আর ঘটনাটি সম্পর্কে গাজীপুর পুলিশ সুপারকে জানানো হয়েছে। তিনিও সেখানে আইনগত ব্যবস্থা নিচ্ছেন। তবে রাত পৌনে ১২টা পর্যন্ত তারা মাইক্রোবাসের সন্ধান পাননি। বর্তমানে উদ্ধার হওয়া ওই ছাত্রী তাদের হেফাজতে নিরাপদে রয়েছে। অভিভাবকরা রাজশাহীতে পৌঁছলে আইনগত প্রক্রিয়া শেষে তাকে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হবে। এছাড়া অন্যদের উদ্ধারে সর্বোচ্চ চেষ্টা চলছে বলেও জানান মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দুস।

বাংলাদেশ সময়: ০০১২ ঘণ্টা, জুলাই ১১, ২০১৯
এসএস/জেডএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-11 00:13:29