bangla news

‘বন্দুকযুদ্ধে’ নয়ন বন্ড নিহত, যা বললেন মিন্নি 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-০২ ১১:২৯:৪৭ এএম
আয়েশা সিদ্দীকা মিন্নি। ছবি: বাংলানিউজ

আয়েশা সিদ্দীকা মিন্নি। ছবি: বাংলানিউজ

বরগুনা: স্বামীর হত্যাকাণ্ডের পর মূল হোতা নয়ন বন্ড গ্রেফতার না হওয়ায় তার ও পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিলেন আয়েশা সিদ্দীকা মিন্নি।

পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নয়ন বন্ড নিহত হয়েছেন। এ খবর শুনে তিনি বলেন, স্বামী হত্যার পর থেকেই নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিলেন তারা। তবে এখন অনেকটা শঙ্কা কেটেছে। মিন্নির দাবি, স্বামী হত্যার ঘটনায় যারা জড়িত, তাদের প্রত্যেকের যেনো বিচার হয়। 

মঙ্গলবার (২ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা পৌরসভার পুলিশ লাইনের ২ নম্বর ওয়ার্ডের তার বাবার বাসায় এভাবেই বলছিলেন নিহত রিফাত শরীফের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দীকা মিন্নি। 

তিনি বলেন, প্রকাশ্যে দিবালোকে চোখের সামনে আমার স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এর চেয়ে কষ্টের আর কী হতে পারে। চিৎকার করে সাহায্য চেয়েছি, কেউ এগিয়ে আসেনি। 

তিনি বলেন, বন্দুকযুদ্ধে খুনি নয়ন বন্ড মারা গেছে। আমি চাই আমার স্বামী হত্যায় যারা জড়িত তাদের প্রত্যেকের বিচার হোক। সবার ফাঁসি চাই আমি। 

‘আমি নিজের এবং আমার পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছিলাম। আজ নয়ন মারা যাওয়ায় আমি নিজেকে হালকা মনে করছি।’ 

এর আগে মঙ্গলবার ভোর ৪টার দিকে বরগুনা সদর উপজেলার ৬ নম্বর বুড়িরচর ইউনিয়নের পুরাকাটা ফেরিঘাট এলাকায় বন্দুকযুদ্ধে নয়ন বন্ড নিহত হয়।

নয়ন বরগুনা পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম কলেজ রোড এলাকার মৃত মো. আবুবক্কর সিদ্দিকের ছেলে। তার বিরুদ্ধে খুন, চাঁদাবাজি, ছিনতাইসহ নানা অভিযোগ রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১১২৫ ঘণ্টা, জুলাই ০২, ২০১৯
আরএ/এমএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বরগুনা রিফাত হত্যা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-02 11:29:47