ঢাকা, সোমবার, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬, ২২ জুলাই ২০১৯
bangla news

চট্টগ্রামে মাইক্রোবাসের এসি বিস্ফোরণে দগ্ধ ১৬, ঢামেকে ৪

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-২৬ ৯:৩৮:২৮ পিএম
ঢামেকে চিকিৎসাধীন দগ্ধ দুই জন। ছবি: বাংলানিউজ

ঢামেকে চিকিৎসাধীন দগ্ধ দুই জন। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের পটিয়া এলাকায় একটি মাইক্রোবাসের এসির কম্প্রেসর বিস্ফোরণে গাড়িতে থাকা ১৬ যাত্রীই দগ্ধ হয়েছেন। এ ঘটনায় দগ্ধ চার জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। 

বুধবার (২৬ জুন) রাত ৮টায় তাদের ঢামেকের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। 

দগ্ধ চারজন হলেন- জাহাঙ্গীর আলম (৩৫), আবুল কালাম (৪২), ইদ্রীস মিয়া (৫০) ও আবির ইসলাম (৪)।

ব্যাপারটি নিশ্চিত করে ঢাকা মেডিকেল পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) বাচ্চু মিয়া বাংলানিউজকে জানান, দগ্ধ চার জনের সবারই মুখসহ শরীরের বেশ কিছু স্থান আগুনে ঝলসে গেছে। তারা বর্তমানে ঢামেক হাসপাতলে চিকিৎসাধীন। 

এর আগে মঙ্গলবার (২৫ জুন) রাত সাড়ে ১১টার দিকে পটিয়া উপজেলার ডাকবাংলো মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দগ্ধ সবাই সাতকানিয়া উপজেলার ধর্মপুর এলাকার বাসিন্দা। তারা সবাই একই পরিবারের সদস্য।

ঢামেকে চিকিৎসাধীন দগ্ধ জাহাঙ্গীর আলম বাংলানিউজকে জানান, চাচাতো ভাই আকতার হোসেনকে চট্টগ্রাম বিমানবন্দর থেকে প্লেনে উঠিয়ে দিয়ে তারা গ্রামে ফিরছিলেন। পথিমধ্যেই এই দুর্ঘটনায় তারা দগ্ধ হয়। 

পটিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হেলাল উদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে বলেন, মাইক্রোবাসটি চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরে বিদেশগামী এক যাত্রীকে নামিয়ে দিয়ে সাতকানিয়ার উদ্দেশে যাচ্ছিল। পথেই হঠাৎ এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে গাড়িতে আগুন ধরে যায়। 

‘খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দগ্ধ অবস্থায় ওই গাড়ির ১৬ যাত্রীকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পাঠায়। দগ্ধদের মধ্যে এক শিশুসহ চার জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।’ 

তিনি আরও বলেন, মাইক্রোবাসের গ্যাস সিলিন্ডার ঠিক আছে। এসির কম্প্রেসর বিস্ফোরিত হয়েই গাড়িতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। পরে গাড়িটি থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৮ ঘণ্টা, জুন ২৬, ২০১৯
এজেডএস/এসএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-26 21:38:28