ঢাকা, মঙ্গলবার, ১ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৬ জুলাই ২০১৯
bangla news

শিশুকে সুন্নাতে খতনা করতে গিয়ে পুরুষাঙ্গ কর্তন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-২৬ ৮:১৮:৫৩ পিএম
ম্যাপ

ম্যাপ

গোপালগঞ্জ: গোপালগঞ্জে তামিম মাহমুদ নামে সাড়ে ৪ বছরের এক শিশুকে সুন্নাতে খতনা করতে গিয়ে পুরুষাঙ্গের কিছু অংশ কেটে ফেলেছেন এক চিকিৎসক। ওই শিশুকে উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় নেওয়া হয়েছে। 

বুধবার (২৬ জুন) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শহরের ডা. হাফেজ মাহফুজুর রহমানের মালিকানাধীন জিম ক্লিনিকে এ ঘটনা ঘটে। ওই শিশু শহরের আরামবাগের এলাকার তারেক মাহমুদের ছেলে।

শিশুটির বাবা তারেক মাহমুদ বাংলানিউজেক জানিয়েছেন, সকাল ১০টায় তার শিশুকে সুন্নাতে খতনা দেওয়ার জন্য শহরের জিম ক্লিনিকে আনা হয়। সকাল ১০টা ২০মিনিটে ওই ক্লিনিকের মালিক ডা. হাফেজ মাহফুজুর রহমানের সুন্নাতে খতনা দেওয়ার জন্য অপারেশন থিযেটারে নেন। সুন্নাতে খতনা দেওয়ার সময় ওই চিকিৎসক আমার ছেলের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলেছেন।পরে তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে আনা হয়। হাসপাতালের চিকিৎসকরা প্রাথমিক ব্যবস্থা দিয়ে ঢাকা নিয়ে যেতে বলেছেন।

গোপালগঞ্জ শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক (সার্জারি) অনুপ কুমার মজুমদার জানিয়েছেন, পুরুষাঙ্গের কাটা অংশ সংরক্ষণ করে ওই শিশুকে ঢাকা নিয়ে যাওয়ার জন্য তার পরিবারকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। দ্রুত সময়ে মাইক্রো সার্জারি করাতে পারলে এটি ভালো হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

অভিযুক্ত চিকিৎসক ডা. হাফেজ মাহফুজুর রহমান জানিয়েছেন, এটি একটা দুর্ঘটনা। শিশুকে সুন্নাতে খতনা দেওয়ার সময় সে হাত-পা ছুড়াছুড়ি করার ফলে এমন ঘটনা ঘটেছে।এটি দুঃখজনক বলেও তিনি মন্তব্য করেন। 

বাংলাদেশ সময়: ২০১১ ঘণ্টা, জুন ২৬, ২০১৯
এসএইচ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   গোপালগঞ্জ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-26 20:18:53