ঢাকা, মঙ্গলবার, ১ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৬ জুলাই ২০১৯
bangla news

ঈশ্বরদীতে ১৩ ঘণ্টা পর মিললো শিশুর মরদেহ

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-২৫ ১০:০৫:০৪ এএম
মরদেহ উদ্ধার। ছবি প্রতীকী

মরদেহ উদ্ধার। ছবি প্রতীকী

ঈশ্বরদী (পাবনা): পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার সাহাপুর ইউনিয়নে নিখোঁজ হওয়ার ১৩ ঘণ্টা পর মিললো সোহাগ হোসেন খাঁ (৬) নামে একটি শিশুর মরদেহ। এসময় তার বুকের ওপর ফুটবল পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) সকাল ৭টার দিকে উপজেলার সাহাপুর ইউনিয়নের চরগড়গড়ি এলাকার একটি করলা ক্ষেতের মাচার নিচে তাকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়।

নিহত সোহাগ চরগড়গড়ি  গ্রামের দিনমজুর কৃষক আকমল হোসেন খাঁ (২৮) ও শিখা বেগম (২৪) দম্পত্তির ছেলে এবং স্থানীয় ওসাকা কিন্ডার গার্টেনের নার্সারি ক্লাসের ছাত্র।

সাহাপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মতলেবুর রহমান মিনহাজ ফকির ওই শিশুর পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে বাংলানিউজকে জানান, সোমবার বিকেলে বাড়ির কাছে মাঠে সহপাঠীদের সঙ্গে ফুটবল খেলতে গিয়ে আর ফিরে  আসেনি সোহাগ। অনেক খোঁজ খবর এবং গ্রামের মসজিদে মাইকিং করেও তার সন্ধান মেলেনি।

মঙ্গলবার সকালে ক্ষেতে করলা তুলতে গিয়ে স্হানীয় এক কৃষক সোহাগের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসীকে খবর দেয়। পরে স্হানীয় ইউনিয়ন পরিষদের ৯ নম্বর ওয়ার্ড মেম্বার (ইউপি সদস্য) মারফত খবর পেয়ে বিষয়টি ঈশ্বরদী থানা পুলিশকে অবগত করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, শত্রুতার জেরে কেউ এই শিশুটিকে হত্যা করে থাকতে পারে।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী বাংলানিউজকে বলেন, একটি শিশুর মরদেহ উদ্ধারের খবর পেয়ে  আমরা ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওনা হয়েছি।

বাংলাদেশ সময়: ১০০০ ঘণ্টা, জুন ২৫, ২০১৯
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   পাবনা মরদেহ উদ্ধার
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-25 10:05:04