bangla news

কোস্ট গার্ডের কাছে ৩টি ইনশোর প্যাট্রোল ভেসেল হস্তান্তর

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-২০ ৯:২৫:১৮ পিএম
কোস্ট গার্ডের কাছে তিনটি ইনশোর প্যাট্রোল ভেসেল হস্তান্তর করা হয়েছে। ছবি: সংগৃহীত

কোস্ট গার্ডের কাছে তিনটি ইনশোর প্যাট্রোল ভেসেল হস্তান্তর করা হয়েছে। ছবি: সংগৃহীত

খুলনা: খুলনা শিপইয়ার্ডে নির্মিত বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের তিনটি ইনশোর প্যাট্রোল ভেসেল হস্তান্তর, দু’টি হাইস্পিড বোট (ফেরি) ও দু’টি হাইস্পিড বোটের (ডাইভিং) কিল লেয়িং অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) বিকেলে খুলনা শিপইয়ার্ড প্রাঙ্গণে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। 

এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন বলেন, প্রাচীনকালে বাংলাদেশ জাহাজ নির্মাণ-দক্ষতায় সমৃদ্ধ ছিল। ঔপনিবেশিক আমলে এ ধারায় ছেদ পড়ে। একসময়ের লাভজনক প্রতিষ্ঠান খুলনা শিপইয়ার্ড রুগ্ন শিল্পে পরিণত হয়। ১৯৯৯ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খুলনা শিপইয়ার্ডকে নৌবাহিনীর হাতে তুলে দেওয়ার যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত নেন। দক্ষ ব্যবস্থাপনায় প্রতিষ্ঠানটি আজ মাথা তুলে দাঁড়িয়েছে ও ফের লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। 

তিনি বলেন, দেশে একশ’র বেশি ইপিজেড স্থাপন করে ৫০ লাখের বেশি কর্মসংস্থান সৃষ্টির পরিকল্পনা আছে সরকারের। বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল দেশের কাতারে এসেছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ভিশন-২০২১, ভিশন-২০৪১ ও ডেল্টা প্লান-২১০০ বাস্তবায়নের পথে অগ্রসর হচ্ছে বাংলাদেশ। খুলনা শিপইয়ার্ড নিজেকে রুগ্ন প্রতিষ্ঠানের অবস্থান হতে সমৃদ্ধ জায়গায় নিয়ে আসার পাশাপাশি বৈদেশিক মুদ্রা দেশে রাখার ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখছে। এ প্রতিষ্ঠান শান্তি ও আপৎকালীন সময়ে সেবা দিতে পারবে বলে আশা করা যায়। অদূর ভবিষ্যতে প্রতিষ্ঠানটি বিদেশে জাহাজ রফতানির সক্ষমতা অর্জন করবে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, গত বছরের ২৩ মে ইনশোর প্যাট্রোল ভেসেল তিনটির লঞ্চিং অনুষ্ঠিত হয়। বর্তমান সরকারের সময়োপযোগী সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে প্রতিবেশী দেশ ভারত ও মিয়ানমারের সঙ্গে সমুদ্রসীমা নির্ধারিত হওয়ায় বাংলাদেশ বিশাল সমুদ্র এলাকা অর্জন করেছে। সমুদ্র সম্পদে সমৃদ্ধ বাংলাদেশের সমুদ্রসীমায় অতন্দ্র প্রহরী হিসেবে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড টহল দিয়ে সমুদ্র বন্দরের নিরাপত্তা, সন্ত্রাস দমন, মাদকের বিস্তার রোধ, মানবপাচার প্রতিরোধ, সমুদ্রচারীদের জীবন রক্ষা ও সর্বোপরি ব্লু-ইকোনমি সংশ্লিষ্ট কার্যাবলিতে নিরাপত্তা দিয়ে চলেছে। এ দায়িত্ব সুষ্ঠুভাবে পালনে নবনির্মিত দ্রুতগতির ইনশোর প্যাট্রোল ভেসেলগুলো কার্যকর ভূমিকা রাখবে। 

অনুষ্ঠানে আরও জানানো হয়, ইনশোর প্যাট্রোল ভেসেল ছাড়াও খুলনা শিপইয়ার্ড লিমিটেড বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের জন্য টাগ বোট, ভাসমান ক্রেন ও পন্টুন তৈরি করছে। এর আগে, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জন্য প্রতিষ্ঠানটি পাঁচটি প্যাট্রোল ক্রাফট ও দু’টি লার্জ প্যাট্রোল ক্রাফট তৈরি করে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের মহাপরিচালক রিয়ার অ্যাডমিরাল এম আশরাফুল হক। অনুষ্ঠানে স্বাগত জানান খুলনা শিপইয়ার্ড লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কমডোর আনিছুর রহমান মোল্লা।

বাংলাদেশ সময়: ২০২৫ ঘণ্টা, জুন ২০, ২০১৯
এমআরএম/একে

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2019-06-20 21:25:18