bangla news

বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য ইউরেনিয়াম কেনার প্রস্তাব অনুমোদন

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-১৯ ৯:৫০:০৮ পিএম
রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প/ফাইল ছবি

রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প/ফাইল ছবি

ঢাকা: পাবনার ঈশ্বরদীতে দেশের একমাত্র পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র ‘রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র’র জন্য নিউক্লিয়ার ফুয়েল তথা ইউরেনিয়াম কিনছে সরকার।

বাংলাদেশ ও রাশান ফেডারেশনের মধ্যে স্বাক্ষরিত আন্তঃরাষ্ট্রীয় সহযোগিতা চুক্তির আওতায় নিউক্লিয়ার ফুয়েল সাপ্লাইয়ের একক উৎস থেকে ইউরেনিয়াম কেনা হবে। রাশান ফেডারেশনের নির্ধারিত ঠিকাদার টিভিইএল জয়েন্ট স্টক কোম্পানির কাছ থেকে সরাসরি ক্রয় চুক্তির মাধ্যমে ইউরেনিয়াম কিনবে সরকার।
 
ইউরেনিয়াম কিনতে বাংলাদেশ শিগগিরই টিভিইএল জয়েন্ট স্টক কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করবে। প্রাথমিক চুক্তি ব্যয় ধরা হয়েছে ৫২৩ কোটি ৯০ লাখ টাকা।
 
বুধবার (১৯ জুন) সচিবালয়ে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় এ সংক্রান্ত একটি ক্রয় প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।
 
কমিটির আহ্বায়াক অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল অসুস্থ থাকায় কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়।
 
মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোসাম্মৎ নাসিমা বেগম সাংবাদিকদের বলেন, ২০২৭ সাল থেকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে নিউক্লিয়ার ফুয়েল রিলোড করা হবে। সে সময় এগুলোর প্রয়োজন হবে। এ জন্য এখনই চুক্তি করতে হবে।
 
২০২৭ সালে ইউরেনিয়ামের বাজার দর অনুযায়ী দাম কম কিংবা বেশি হতে পারে বলে জানান অতিরিক্ত সচিব নাসিমা বেগম।
 
তিনি জানান, পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে প্রতি ১৮ মাস পর পর নিউক্লিয়ার ফুয়েল রিলোড করা হবে। এক্ষেত্রে নির্ধারিত ঠিকাদার টিভিইএল জয়েন্ট স্টক কোম্পানির কাছ থেকে ইউরিনিয়াম ক্রয় করবে সরকার।
 
দুই হাজার ৪০০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের উৎপাদন শুরু হওয়ার কথা রয়েছে ২০২২ সালে।
 
৭ হাজার ১৪৭ কোটি টাকার জ্বালনি তেল আমাদনি
চলতি বছরের জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়ে সাত হাজার ১৪৭ কোটি ৯৭ লাখ টাকা ব্যয়ে ১৩ লাখ ৪৫ হাজার মেট্রিক টন বিভিন্ন ধরনের জ্বালানি তেল আমাদানি করতে একটি প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা কমিটি।
 
সিঙ্গাপুর ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ইউনিভ্যাক এনার্জি লিমিটেড এবং বিট এশিয়া এসব জ্বালানি সরবরাহ করবে।
 
অতিরিক্ত সচিব মোসাম্মৎ নাসিমা বেগম বলেন, ১১ লাখ ২০ হাজার মেট্রিক টন গ্যাস অয়েল, এক লাখ মেট্রিক টন ফার্নেস অয়েল এবং ১৫ হাজার মেট্রিক টন মোগ্যাস আমদানির একটি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি।
 
বাংলাদেশ সময়: ২১৪৬ ঘণ্টা, জুন ১৯, ২০১৯
এমআইএইচ/এসএইচ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-19 21:50:08