ঢাকা, বুধবার, ৯ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৪ জুলাই ২০১৯
bangla news

বরগুনায় স্ত্রী হত্যায় স্বামীর যাবজ্জীবন 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-১৮ ৫:০৮:৫২ পিএম
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

বরগুনা: বরগুনায় স্ত্রী হত্যা মামলায় স্বামীকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে। 

মঙ্গলবার (১৮ জুন) দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. হাফিজুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন। 

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন- বরগুনা জেলার আমতলী পৌরসভার ফেরিঘাট এলাকার সুলতান তালুকদারের ছেলে সেন্টু। 

রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। অপর আসামি ইউনুসকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০ বছর আগে আবদুল মান্নানের মেয়ে মাসুমা বেগমের সঙ্গে সেন্টুর বিয়ে হয়। বিয়ে পর থেকে মাসুমার কাছে সেন্টু এক লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে আসছিল। যৌতুক না পেয়ে তাকে প্রায়ই নির্যাতন করতো। 

সর্বশেষ ২৮ আগস্ট সকাল ৬টায় সেন্টু এক লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে মাসুমার কাছে। মাসুমা যৌতুক দিতে আবারও অস্বীকার করলে সেন্টু ক্ষিপ্ত হয়ে মাসুমার চুলের মুঠি ধরে ভবনের ওয়ালের সঙ্গে মাথায় আঘাত করে। এতে মাসুমা গুরুতর আহত হয়ে পড়লে ইউনুসের সহায়তায় সেন্টু মাসুমার মুখে বিষ ঢেলে দেয়। মাসুমার সন্তান নাঈম তা দেখতে পেয়ে চিৎকার দিয়ে লোকজন জড়ো করলে স্থানীয়রা দ্রুত মাসুমাকে আমতলী হাসপাতালে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন।

এ ঘটনার পর মাসুমার বাবা আবদুল মান্নান বাদী হয়ে ২০১৩ সালের ২৮ আগস্ট আমতলী থানায় আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

আমতলী থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) অরুন কুমার মামলাটি তদন্ত করে ২০১৪ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি ওই দুইজন আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালত মঙ্গলবার এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি সেন্টু বাংলানিউজকে বলেন, আমি নির্দোষ। এ রায়ের বিরুদ্ধে আমি উচ্চ আদালতে আপিল করবো। 

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৩ ঘণ্টা, জুন ১৮, ২০১৯
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   যাবজ্জীবন বরগুনা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-18 17:08:52