ঢাকা, সোমবার, ৩ আষাঢ় ১৪২৬, ১৭ জুন ২০১৯
bangla news

কুড়িগ্রামে বাড়তি ভাড়া ফেরত পেলেন যাত্রীরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-১২ ৫:৫৬:৪৮ এএম
যাত্রীদের টিকিট চেক করছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। ছবি: বাংলানিউজ

যাত্রীদের টিকিট চেক করছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। ছবি: বাংলানিউজ

কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রামে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে ঢাকাগামী নৈশকোচের যাত্রীদের টিকিটের অতিরিক্তি ভাড়া ফিরিয়ে দিয়েছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা। 

মঙ্গলবার (১১ জুন) রাতে কুড়িগ্রাম সদরের কাঁঠালবাড়ী কলেজ সংলগ্ন সেতুতে ঢাকাগামী বিভিন্ন নৈশকোচে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে যাত্রীদের ভাড়া চেক করা হয়। 

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার সুদীপ্ত কুমার সিংহ, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রিন্টু বিকাশ চাকমা এবং হাসিবুল হাসান।  

নৈশকোচের যাত্রীরা ভ্রাম্যমাণ আদালতের এ অভিযানের সময় অভিযোগ করেন, অতিরিক্ত ভাড়া নিয়েও টিকিটে তা না লেখার কারণে তারা বাড়তি টাকা ফেরত পাননি। তারপরও প্রশাসনের এ পদক্ষেপে খুশি যাত্রী সাধারণ। 

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রিন্টু বাংলানিউজকে জানান, যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্তি ভাড়া আদায়ের সুনির্দিষ্ট অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসক মোছা. সুলতানা পারভীনের নির্দেশে মঙ্গলবার (১১ জুন) সন্ধ্যা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত কাঁঠালবাড়ী ব্রিজের উপর পুলিশের সহায়তায় নৈশকোচে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় যেসব যাত্রীদের টিকিটে অতিরিক্তি ভাড়া নেওয়া হয়েছে তাদের কোচের সুপারভাইজারের মাধ্যমে অতিরিক্তি গ্রহণকৃত টাকা ফেরত দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। 

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার সুদীপ্ত যাত্রীদের সচেতন হওয়ার বিষয় উল্লেখ করে বাংলানিউজকে জানান, যারা টিকিট কিনবেন তারা প্রদেয় ভাড়া উল্লেখ করে টিকিট নেবেন। তাহলে বিড়ম্বনা এড়ানো সম্ভব হবে। জেলা প্রশাসকের নির্দেশনা অনুযায়ী ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

বাংলাদেশ সময়: ০৫৫৪ ঘণ্টা, জুন ১২, ২০১৯
এফইএস/আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   কুড়িগ্রাম ভ্রাম্যমাণ আদালত
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-12 05:56:48