bangla news

উন্নত দেশ গঠনে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নপূরণের অংশীদার জাপান

মহিউদ্দিন মাহমুদ, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২৯ ৯:৫২:৩৩ পিএম
দুই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আবে শিনজো

দুই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আবে শিনজো

টোকিও, জাপান থেকে: বাংলাদেশ ও জাপানের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জাপান সবসময় বিশ্বস্ত বন্ধু হিসেবে বাংলাদেশের পাশে ছিল, আছে। উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গঠনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নপূরণের অংশীদার জাপান।

বুধবার (২৯ মে) সন্ধ্যায় জাপানের প্রধানমন্ত্রী আবে শিনজোর বাসভবনে তার দেওয়া নৈশভোজে এ কথা বলেন শেখ হাসিনা।

বাংলাদেশ সরকারপ্রধান বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্নপূরণে বাংলাদেশ একগুচ্ছ বদলে যাওয়ার মতো উন্নয়ন উদ্যোগ বাস্তবায়ন করছি। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে আমরা সবসময় জাপানকে বিশ্বস্ত বন্ধু ও অংশীদার হিসেবে পাশে পেয়েছি।

এর আগে বিকেলে জাপানের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের সময় আবে শিনজোর সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে আন্তরিক আলোচনার কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, দুই দেশের সহযোগিতামূলক সম্পর্ককে আরও গভীর ও শক্তিশালী করতে আমরা একমত হয়েছি। আমরা উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সহযোগিতার নতুন ক্ষেত্র চিহ্নিত করেছি, যেগুলো দুই দেশের সম্পর্ককে আরও জোরদার করবে বলে বিশ্বাস করি।

সকালে জাপানের শীর্ষ ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সভায় মিলিত হওয়ার কথাও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

১৯৭৩ সালে ছোট ভাই ও ছোট বোনসহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জাপান সফরের কথা স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তারা জাপানের মানুষের কাছে থেকে ভালোবাসা ও স্নেহ পেয়েছিল, সেই মধুর স্মৃতি নিয়ে দেশে ফিরে গিয়েছিল। তখন থেকে যখনই আমি জাপান সফর করি, ছোট ভাই ও বোনের সেই উষ্ণ অনুভবের কথা স্মরণ করি।

ছোট বেলায় পুতুল, ভিউ কার্ড, স্ট্যাম্পস, ক্যালেন্ডার, আর্টসহ জাপানের বেশ কিছু জিনিস নিজের সংগ্রহে ছিল বলে উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, এই সফরসহ অতীতের সব সফরের মধুর স্মৃতিগুলো এবং জাপানিদের উষ্ণ বন্ধুত্বপূর্ণ আতিথেয়তার কথা আমি সব সময় হৃদয়ে ধারণ করি।

শেখ হাসিনা এসময় জাপানের প্রধানমন্ত্রী আবে শিনজো এবং তার স্ত্রীকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪৬ ঘণ্টা, মে ২৯, ২০১৯
এমইউএম/এইচএ/
 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2019-05-29 21:52:33