bangla news

বরিশালে র‌্যাব-পুলিশের বিশেষ টহল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২৮ ৬:১৮:৪৩ পিএম
র‌্যাব-পুলিশের বিশেষ টহল

র‌্যাব-পুলিশের বিশেষ টহল

বরিশাল: ঈদুল ফিতর কেন্দ্র করে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে বরিশালে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তৎপরতা শুরু করেছে। মাঠপর্যায়ে শুরু হয়েছে তাদের কার্যক্রমও। চলছে বিশেষ মহড়া ও টহল, গোয়েন্দা নজরদারি, অস্থায়ী ক্যাম্প স্থাপন, চেকপোস্টের মাধ্যমে সন্দেহভাজনদের তল্লাশি। আর এসব অনেক পদক্ষেপই এবার প্রথম বলে জানিয়েছেন নগরবাসী।

ঈদুল ফিতর উপলক্ষে র‌্যাব-৮ তাদের দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় তিন স্তরের নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা হাতে নিয়েছে। দিনরাত র‌্যাবের টহল অব্যাহত রয়েছে। পাশাপাশি বরিশাল নগরজুড়ে মোটরযান নিয়ে দেওয়া হচ্ছে বিশেষ টহল। যা ঈদের ছুটি শেষ না হওয়া পর্যন্ত চলমান থাকবে।

মঙ্গলবার (২৮ মে) র‌্যাব-৮ এর পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আসন্ন ঈদুল-ফিতর উপলকেষ র‌্যাব-৮ এর পক্ষ থেকে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।  

সাদা পোশাকে গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানোর পাশাপাশি  ঈদের পূর্ববর্তী, ঈদ ও ঈদের পরবর্তী সময়ে জনসাধারণ যাতে নির্বিঘ্নে যাতায়াত করতে পারে তার জন্য বরিশালের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল নথুল্লাবাদ ও নদীবন্দর এলাকায় র‌্যাবের অস্থায়ী কন্ট্রোল রুম ও মেডিক্যাল ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। 

পাশাপাশি ঈদের আগে মার্কেট এবং ঈদের আগে ও পরে বাসস্ট্যান্ড, লঞ্চঘাট ও ফেরিঘাটে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। অপরদিকে গুরুত্বপূর্ণ ঈদগাহ ময়দানে ঈদের জামাত চলাকালীন সাদা পোশাকধারী ও টহলদল নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে বিশেষ দায়িত্ব পালন করবে। 

এছাড়া রমজানের শুরু থেকে ব্যতিক্রমী সব কার্যক্রম পরিচালনা করছে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ। সোমবার (২৭ মে) বরিশাল নগরে মেট্রোপলিটন পুলিশের সদস্যরা মোটরযান নিয়ে বিশেষ মহড়া ও টহল দিয়েছেন।  

বিশেষ টহলে র‌্যাব ঈদুল ফিতর উপলক্ষে নগরে আইন-শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তমূলক ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে অনুষ্ঠিত এ মহড়া নগরের আমতলা মোড় পুলিশ কমিশনারের অস্থায়ী কার্যালয় চত্বর থেকে শুরু হয় যা নগরের সিঅ্যান্ডবি রোড, বান্দরোড, নথুল্লাবাদ বাসটার্মিনাল, বিএম কলেজ রোড, হাসপাতাল রোডসহ প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

বিশেষ মহড়া চলাকালে সামনের দিকে ট্রাফিক ও থানা পুলিশের সদস্যদের মোটরসাইকেল বহর এবং এর পরপরই কর্মকর্তাদের জিপ, পেট্রোলিং টিমের পিকআপগুলো পর্যাক্রমে সাজানো ছিল।

মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (দক্ষিন) মোয়াজ্জেম হোসেন ভূইঞা, উপ-কমিশনার (উত্তর) কাজী জাহাঙ্গীর মল্লিক, উপ-কমিশনার (ট্রাফিক) খায়রুল আলমসহ বিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং সদস্যরা মহড়ায় উপস্থিত ছিলেন।

উপ-কমিশনার (ট্রাফিক) খায়রুল আলম সাংবাদিকদের জানান, পুলিশ কমিশনারের পরিকল্পনা ও নির্দেশে ঈদের আগে নগরীর আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়নসহ বিশৃঙ্খলা, চুরি, ছিনতাই, মলম পার্টি ও ইভটিজিং রোধ এবং নগরবাসীকে সচেতন করতে এই বিশেষ মহড়া ও টহলের আয়োজন করা হয়েছে। 

এদিকে নিরাপত্তা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ঈদ বাজার ঘিরে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কর্মকাণ্ড গত কয়েক বছরের চেয়ে দৃশ্যমান। পার্কিংবিহীন বাজার ব্যবস্থাপনায় যানজট নিরসনে সড়কের পাশে যানবাহন কোননোভাবেই থাকতে দিচ্ছে না তারা। এছাড়াও ফুটপাত দখলমুক্ত রাখা, নির্বিঘ্নে ঈদবাজারে চলাচলের জন্য ফলপট্টি থেকে চকবাজার ও কাটপট্টি রোড যান চলাচল বন্ধ রাখার মতো পদক্ষেপও হাতে নিয়েছে পুলিশ বাহিনী। 

আবার এসব কাজ মনিটরিং করাসহ আইন-শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা প্রতিনিয়ত মাঠ পর্যায়ে ঘুরে দেখছেন নগর পুলিশের কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান (বিপিএম-বার)।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের এসব কার্যক্রম বেশিরভাগই এবারেই প্রথম দেখছেন বলে জানিয়েছেন নগরবাসী। তাদের মতে, মাঠপর্যায়ের পুলিশের তৎপরতামূলক এসব কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে নগরবাসী নিরাপত্তার বিষয়ে যেমন আশ্বস্ত হচ্ছেন, তেমনি দুষ্কৃতিকারীদের জন্য বিপদের আগাম সংকেত দিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৪ ঘণ্টা, মে ২৮, ২০১৯
এমএস/এএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   র‌্যাব পুলিশ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2019-05-28 18:18:43