ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আষাঢ় ১৪২৬, ২৫ জুন ২০১৯
bangla news

টার্মিনালেই বাস-চালকের কাগজপত্র দেখার নির্দেশ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২৬ ৬:১৪:৪৩ পিএম
আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দেন

আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দেন

ঢাকা: ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে টার্মিনাল থেকে বাস ছাড়ার আগেই চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স ও পরিবহনের ফিটনেস কাগজপত্র পরীক্ষা করার নির্দেশনা দিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

রোববার (২৬ মে) দুপুরে পুলিশ সদর দফতর থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সব মহানগর ও রেঞ্জের পুলিশ কর্মকর্তাদেরকে ঈদে দেশের সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সম্পর্কে বিভিন্ন দিক নির্দেশনার সময় এমন নির্দেশনা দেন।

ভিডিও কনফারেন্সে মহানগর সদর দফতরে উপ-কমিশনার ও তদুর্ধ্ব কর্মকর্তারা এবং রেঞ্জ ডিআইজি কার্যালয়ে রেঞ্জের অধীন জেলা পুলিশ সুপার ও তদুর্ধ্ব কর্মকর্তারা অংশ নেন।

পুলিশ সদর দফতরের সহকারী মহা-পরিদর্শক (এআইজি) সোহেল রানা জানান, টার্মিনাল থেকে বাস ছাড়ার আগে ড্রাইভারের ড্রাইভিং লাইসেন্স, অন্যান্য কাগজপত্র ও ফিটনেস পরীক্ষাসহ বাসের ছাদে যাত্রী পরিবহন বন্ধের নির্দেশনা দিয়েছেন আইজিপি।

এছাড়া, চলন্ত ট্রেনে পাথর মারা রোধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছেন আইজিপি। যেন কোনোভাবে এ ধরনের দুঃখজনক ঘটনার পুনরাবৃত্তি না ঘটে। নৌ-যানে অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন রোধ এবং নৌপথে অন্যকোনো স্থান থেকে নৌকা দিয়ে যাত্রী উঠনো বন্ধ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

সড়ক ও মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি অনুসরণের নির্দেশনা দিয়ে আইজিপি বলেন, মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে সিসিটিভি স্থাপন, ট্রাক, পিকআপ এবং পণ্যবাহী ট্রাকে যাত্রী পরিবহন রোধ এবং সুনির্দিষ্ট তথ্য ছাড়া মহাসড়কে যানবাহন থামানো যাবে না।

সাধারণ মানুষের ঈদের কেনাকাটা নির্বিঘ্ন করতে মার্কেট ও শপিংমলে ভোর পর্যন্ত পোশাকে ও সাদা পোশাকে বিশেষ নিরাপত্তা দেওয়ার কথা বলেছেন পুলিশ প্রধান। তিনি মার্কেট কমিটির নিজস্ব নিরাপত্তা ব্যবস্থা গড়ে তোলা, স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ এবং বৃহৎ মার্কেট ও শপিংমলে সিসিটিভি, হ্যান্ড মেটাল ডিটেক্টর এবং প্রয়োজনে আর্চওয়ে স্থাপনের পরামর্শ দেন।

আইজিপি জাতীয় ঈদগাহ, কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া, দিনাজপুরের গোর-এ শহীদ বড় ময়দান ঈদগাহসহ বিভাগ ও জেলার কেন্দ্রীয় ঈদ জামাতস্থলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার নির্দেশনাও দিয়েছেন।

ঈদের ছুটিতে আবাসিক এলাকা, ব্যাংক ও অর্থলগ্নীকারী প্রতিষ্ঠান, স্বর্ণের দোকান ইত্যাদির নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলেছেন তিনি।

আইজিপি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, জঙ্গি সংগঠনের কার্যক্রমের ওপর গোয়েন্দা নজরদারি বাড়াতে হবে। জঙ্গিরা যাতে ভাড়া বাসাকে আস্তানা হিসেবে ব্যবহার করতে না পারে সেজন্য নিয়মিত ভাড়াটিয়া তথ্য সংগ্রহ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

ঈদের সময় গুরুত্বপূর্ণ মেগা প্রজেক্ট যেমন- রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র, পদ্মাসেতু, পায়রা সমুদ্র বন্দর, মাতারবাড়ি তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র, বিদেশি কূটনৈতিক মিশন ও স্থাপনা এবং বিদেশি নাগরিকদের নিরাপত্তা বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

আইজিপি বলেন, দেশের সামগ্রিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি যেকোনো সময়ের চেয়ে সন্তোষজনক। এ অবস্থা ধরে রাখার জন্য পুলিশ কর্মকর্তাদেরকে পেশাদারিত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১০ ঘণ্টা, মে ২৬, ২০১৯
পিএম/জেডএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ঈদে বাড়ি ফেরা পুলিশ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-26 18:14:43