ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ আষাঢ় ১৪২৬, ২০ জুন ২০১৯
bangla news

‘কবি নজরুলের ইচ্ছা পূরণ হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর মাধ্যমে’

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২৫ ৯:৪৬:২৯ এএম
জাতীয় কবির সমাধিস্থলে শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন ঢাবির উপাচার্যসহ অন্যরা। ছবি: বাংলানিউজ

জাতীয় কবির সমাধিস্থলে শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন ঢাবির উপাচার্যসহ অন্যরা। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: জাতীয় কবি নজরুলের ইচ্ছা পূরণ হয়েছিল জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মাধ্যমে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

শনিবার (২৫ মে) সকালে জাতীয় কবির সমাধিস্থলে শ্রদ্ধা জানাতে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ঢাবির উপাচার্য এ মন্তব্য করেন।

ঢাবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধু প্রথমে যে সিদ্ধান্ত নিলেন সেটি হলো নজরুলকে সমমর্যাদায় এবং একইভাবে তাকে নিজ মহিমায় আসীন করে ঢাকাতে আনা। সেটি ছিল বঙ্গবন্ধুর একটি বলিষ্ঠ এবং সময়পোযোগী পদক্ষেপ। কেননা নজরুলের চেতনা মহান মুক্তিযুদ্ধে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছিল। নজরুল বাঙালি মানসকাঠামোতে যে অসামান্য স্থান দখল করে আছেন সেটি সম্মান করে তখন সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু নজরুলকে কলকাতা থেকে ঢাকায় আনলেন। রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থাপনায় তিনি সব ধরনের ব্যবস্থা করলেন।

ঢাবি উপাচার্য বলেন, নজরুলেরও মহান স্রষ্টার কাছে একটি প্রত্যয় ছিল মসজিদের কাছে সমাহিত করা। আমার মনে হয় নজরুলের প্রার্থনা সেটি বোধ হয় মহান সৃষ্টিকর্তা পূরণ করেছেন বঙ্গববন্ধুর মাধ্যমে। তখন তিনি যদি নজরুলকে কলকাতা থেকে ঢাকা না আনতেন, তাহলে ঢাবির কেন্দ্রীয় মসজিদের পাশে এই সুন্দর সুশোভিত সৌন্দর্য্যময় প্রকৃতির মধ্যে তিনি এখন সমাহিত হতেন না। সেই কাজটি সম্ভব হয়েছে জাতির জনক কলকাতা থেকে নজরুলকে ঢাকায় এনেছিলেন বিধায়।

শিক্ষার্থীসহ সব পেশার মানুষের উদ্দেশে তিনি বলেন, আমরা যে কবির জন্ম এবং মৃত্যুবার্ষিকী পালন করি তার পেছনে একটি মৌলিক চেতনা থাকে। সেটি হলো নজরুলের উদার নৈতিকতা, মানবিক মূল্যবোধ এবং অসাম্প্রদায়িক চেতনা। যেটি আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ছিল। আমরা আমাদের নতুন প্রজন্মের মধ্যে এই চেতনা ক্রমান্বয়ে সম্প্রসারণ করলে তাদেরকে আরও  শাণিত করবে সেই প্রত্যাশা আমরা রাখবো। মানবিক এবং মহান মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক রাষ্ট্র বিণির্মাণে নজরুলের যে দর্শন আমরা যতই ধারণ করবো, ততই আমরা মানবিক উদারনৈতিক রাষ্ট্র বিনির্মাণে সক্ষম হবো।

কবি নজরুলের ১২০ তম জন্মবার্ষিকীতে তার সমাধিস্থলে ঢাবির বিভিন্ন হল, বিভাগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

** জাতীয় কবি নিয়ে নতুন করে বিতর্কের সুযোগ নেই: হানিফ

বাংলাদেশ সময়: ০৯৪৫ ঘণ্টা, মে ২৫, ২০১৯
এসকেবি/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-25 09:46:29