ঢাকা, রবিবার, ২ আষাঢ় ১৪২৬, ১৬ জুন ২০১৯
bangla news

বেগমগঞ্জে সম্পত্তি বিরোধে গৃহবধূকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৩

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২৪ ৫:৫৯:৫৮ পিএম
গ্রেফতারকৃত বাবু ও সাইফুল। ছবি: বাংলানিউজ

গ্রেফতারকৃত বাবু ও সাইফুল। ছবি: বাংলানিউজ

নোয়াখালী: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার ছয়ানী ইউনিয়নে সম্পত্তি বিরোধের জেরে এক গহবধূকে (২৫) গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে ভিকটিম থানায় মামলা দায়ের করেছেন।       

এ ঘটনায় অভিযুক্তদের মধ্যে তিন আসামি সাইফুল (৩০), বাবু (৩২) ও প্রধান আসামি হারুনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি এলজি ও এক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৪ মে) সকালে পুলিশ ইউনিয়নের দোয়ালিয়া গ্রামের একটি বাড়ি ঘেরাও করে সাইফুল ও বাবুকে গ্রেফতার করে। পরে বিকেলে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের আলেয়ারপুর ইউনিয়নের হিরাপুল স্কুলের সামনে থেকে হারুণকে গ্রেফতার করা হয়। 

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- ওই গ্রামের মোস্তফার ছেলে সাইফুল, রুদ্রপুর গ্রামের কফিল উদ্দিনের ছেলে বাবু ও হারুণ। এর আগে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে গৃহবধূর ঘরে ঢুকে আসামিরা তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

নির্যাতিতার পরিবার জানায়, অভিযুক্ত তিন আসামি হারুন, সাইফুল ও বাবুর সঙ্গে পুকুরে মাছ চাষকে কেন্দ্র করে ভিকটিমের স্বামীর বিরোধ চলছিল। এর জেরে বিভিন্ন সময় আসামিরা তাদের হুমকি দিয়ে আসছিল। 

একপর্যায়ে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ভিকটিমদের ঘরে ঢুকে ঘরে থাকা জাহানারা বেগম (৫৫) ও মনোয়ারা বেগমকে (১৮) মারধর করে জখম করে আসামিরা। পরে ওই তিন জন ভিকটিমকে একটি কক্ষে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। বাড়ির লোকজন বিষয়টি টের পেয়ে এগিয়ে গেলে আসামিরা পালিয়ে যায়।

যাওয়ার সময় আসামিরা তাদের ঘর থেকে ৪০ হাজার টাকার একটি স্বর্ণের চেইন নিয়ে যায় ও বসতঘরে ব্যাপক ভাঙচুর করে। 

বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ আলম মোল্লা জানান, এ ঘটনায় ভিকটিমের স্বামী বাদী হয়ে তিনজনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ৬০/৭০ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার সূত্র ধরে অভিযান চালিয়ে অস্ত্রসহ দুইজনকে দুপুরে ও বিকেলে এক জনকে গ্রেফতার করা হয়। 

ওসি আরো জানান, ভিকটিমকে উদ্ধার করে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫৪ ঘণ্টা, মে ২৪, ২০১৯
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   নোয়াখালী
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-24 17:59:58